আসসালামু আলাইকুম । আশা করি সকলে ভালো আছেন । আমিও আলহামদুলিল্লাহ আপনাদের দোয়ায় অনেক ভালো আছি । যাই হোক আমি বেশি কথা বাড়াতে চাই না সরাসরি পোস্টের কথাতে চলে আসতে চায় ।

অনেকেই হয়তো পোস্টের টপিক দেখেই বুঝে ফেলেছেন যে আজ আমি কোন বিষয় নিয়ে লিখতে যাচ্ছি । আজ আমি আপনাদের সাথে বিজ্ঞানের একটি বিষয় {মৌলের ইলেক্ট্রন বিন্যাস} নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি । আশা করি সকলে আমার আজকের পোস্ট পড়বেন । ভালো লাগলে লাইক এবং কমেন্ট করবেন ।

যে পদাথকে ভাঙলে ঐ পদাথের ক্ষুদ্রতম কণা ব্যাতীত অন্য কোন পদাথ পাওয়া যায় না তাকে মৌল বলে । এ পযন্ত ১১৮ মৌল আবিষ্কৃত হয়েছে । এর মধ্যে ৯৮টি মৌল প্রকৃতিতে পাওয়া যায় । বাকি ২০টি মৌল বিজ্ঞানাগারে তৈরি করা হয়েছে । এগুলোকে কৃত্রিম মৌল বলে । এমনকি মানুষের দেহেও ২৬টি ভিন্ন ভিন্ন মৌল রয়েছে ।

বতমানে বিজ্ঞানের আধিপত্য বৃদ্ধি পেয়েছে । বিজ্ঞানের একটি বিভাগ হচ্ছে রসায়ন । এই রসায়নে পদাথের ধম নিয়ে আলোচনা করা হয় । আর এই আলোচনা করতে গিয়ে সবচেয়ে বেশি যে জিনিসটার প্রয়োজন হয় সেটি হলো মৌলের ইলেক্ট্রন বিন্যাস । এই ইলেক্ট্রন বিন্যাস নিয়েই আমার আজকের আলোচনা । আপনি চাইলে ১১৮টি মৌলেরই ইলেক্ট্রন বিন্যাস করতে পারেন খুব সহজেই ।

ইলেক্ট্রন বিন্যাস করতে প্রয়োজন হয় শুধুমাত্র মৌলটির পারমাণবিক সংখ্যা । কারণ একটি মৌলের পারমাণবিক সংখ্যা ও ইলেক্ট্রন সংখ্যা সমান । তাই ইলেক্ট্রন বিন্যাসে পারণমানবিক সংখ্যা প্রয়োজন হয় ।

একটি পদাথে একটি নিউক্লিয়াস থাকে । তার কেন্দ্রে থাকে নিউট্রন ও প্রোটন । আর চারিদিকে বৃত্তাকার অথবা উপবৃত্তাকার কক্ষপথে ইলেক্ট্রন ঘুরতে থাকে । এরকম কিছু কক্ষপথ থাকে । এরকম কিছু কক্ষপথ থেকে । ইলেক্ট্রন বিন্যাস থেকে এগুলো ভালোভাবে জানতে পারব । তো চলুন শিখে নেওয়া যাক ।

যেহেতু এটা প্রথম পব । তাই আজকে আমরা শুধু অরবিটাল সাজিয়ে নেওয়া শিখব । আমরা কিছু কৌশলে এটা শিখব ।

১। প্রথমে s,p,d,f অরবিটালগুলো লিখে নিন । ছবিতে বড় হাতের অক্ষরে দেওয়া হয়েছে । প্রকৃতপক্ষে এগুলো ছোট হাতের অক্ষরে হবে ।

২। এখন একটি করে অরবিটাল নিন এবং ২ বার করে লিখুন । যেমন :- S নিলে লিখুন “s s” । মাঝে অনেক খানি ফাঁকার রাখুন ।

৩। তারপর ২টি, ৩টি ও সবগুলো নিয়ে দুইবার উল্টো করে লিখুন । যেমন : S ও P নিলে হবে “p s p s” । ছবিতে ভালোভাবে দেখানো হয়েছে ।


৪। মূলত এরকম হবে ।

৫। এখন কতটি S অরবিটাল আছে তা গণনা করে লিখে ফেলুন । ৮টি এস হবে । যদি না হয় তবে বুঝবেন ভুল হচ্ছে ।

৬। এখন 8s থেকে আগের অরবিটালে 7,6,5 এভাবে লিখতে আসুন । আবার 7s আর আগের অরবিটালগুলোতে 6,5,4 এভাবে উল্টো করে লিখতে লিখতে আসুন । আর অরবিটালগুলো সম্পন্ন করুন ।

আমাদের এগুলো শিক্ষকরা অনেক অঙ্ক কষে শিখিয়েছেন বা মুখস্ত করিয়েছেন বা অন্যান্য উপায় অবলম্বন করিয়েছেন । এটি অনেক সহজ উপায় । অন্যান্য সকল উপায়ের সাথে এটি মিলবে । কোন কিছু জানতে কমেন্ট করতে পারেন ।

4 thoughts on "সকল মৌলের ইলেক্ট্রন বিন্যাসের সহজ উপায় [পব ১]"

  1. Writer Contributor says:
    এটা জঠিল করে করার কোনো দরকার আছে । এটা খুব সহজেই তো করা যায়।
    1. tricklover Author Post Creator says:
      এটা সহজ নয়?
  2. Writer Contributor says:
    না । আমি অন্যভাবে শিখছি আর খুব সহজ।
  3. tricklover Author Post Creator says:
    kon vabe?

Leave a Reply