আসসালামুআলাইকুম,
কেমন আছেন সবাই ?আমি অনামিকা ট্রিকবিডি থেকে! এবং আজকে আমরা খুবই ইন্টারেস্টিং একটা টিউটোরিয়াল নিয়ে হাজির হয়েছি এটা হচ্ছে আপনার কম্পিউটারে কিভাবে উইন্ডোজ ১১ ইন্সটল করবেন সেটার একটা টিউটরিয়াল যদি আপনাদের কাছে উপকারী হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই লাইক দিয়ে কমেন্ট সেকশনে কমেন্ট করে জানাবেন ।

তো চলুন কথা না বাড়িয়ে শুরু করি।

এবারের নতুন উইন্ডোজ এর ইনস্টলেশন কিন্তু প্রিভিয়াস যত উইন্ডোজ বাজার বেরিয়েছিল তাদের থেকে একটু ডিফারেন্ট কেননা মাইক্রোসফট এই উইন্ডোজ ১১ কে পাবলিকলি অ্যাভেইলেবল করবে ২০২২ সালের শুরুর দিকে।

তো এখন তো আমরা ২০২১ এ আছি এবং কিছুদিন আগে উইন্ডোজ ইলেভেন টা এনাউন্স করা হয়েছে! তো এখানে আসলে হচ্ছেটা কি?
বর্তমানে উইন্ডোজ ১১ টি বেটা টেস্টিং মুডে রয়েছে তো আপনারা জানেন উইন্ডোজ ইলেভেন কিন্তু উইন্ডোজ ১০ ইউজারদের জন্য ফ্রি আপডেট হবে! যেটা microsoft-অফিশিয়ালি জানিয়েছে।

তবে তারা উইন্ডোজ ১১ ইনস্টল এর ক্ষেত্রে কিছু বিষয় এ রিকোয়ারমেন্ট রেখেছে যেটা আসলে বর্তমানে অনেকে ইউজারদের জন্যই মিটাপ করা বেশ কঠিন! মাইক্রোসফট কিন্তু ইন্টেলের ৮ জেনারেশন সিপিইউ পর্যন্ত অফিশিয়ালী সাপোর্ট দিয়েছে এবং তার প্রিভিয়াসলি লাইক ইন্টেল 6gen সিপিইউ ইউজার তো তারা কিন্তু উইন্ডোজ ইলেভেন ইন্সটল দিতে পারবেন না।

মানে এখনি পারবেন না সেটা অবশ্যই যখন পাবলিকলি রিলিজ করা হবে! তখন হয়তোবা অবশ্যই পারবেন। তবে এই মুহূর্তে তারা যেন এই বেটা টেস্টার ইউজার কমিউনিটি টা কে একটু ছোট রাখতে পারে।

যাতে করে খুব সহজে ডাটা কালেক্ট করা যায়, আর সে জন্য একটি কাইটেরিয়া বেঁধে দিয়েছে এবং সেটি হচ্ছে যাদের মাদারবোর্ডে টিপিএম 2.0 নেই। ঐ সকল ইউজার কিন্তু উইন্ডোজ ইলেভেন ইন্সটল করতে পারবেন না।

এর মানে এই না যে আপনার পিসি উইন্ডোজ ইলেভেন হ্যান্ডেল করতে পারবে না, এর মানে হচ্ছে এই যে তারা আসলে আপনাকে এই মুহূর্তে লিমিট করে রেখেছে।

এবং আরেকটি ভালো কথা- উইন্ডোজ ইলেভেন এই ভাবে ইন্সটল করা কিন্তু কোনোভাবেই অফিশিয়ালি রিকমেন্ডেড না।
তাই এভাবে আপনারা ইন্সটল করতে ও যাবেন না। কেননা এই ধরনের বেটা টেস্টিং গুলোতে অনেক বাগস থাকে অনেক ফলস থাকে।
আর এইসব কারণগুলোতে কিন্তু আপনার পিসিটি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।

তো এই জন্য অবশ্যই রিক্স আপনার নিজেরটা নিজেকে নিতে হবে। তবে আমি ইন্সটল করে বেশ কয়েক দিন ব্যবহার করছি কোন প্রবলেম ফেস করিনি।

তার পরও সম্পূর্ণ রেস্পন্সিবিলিটি যার যার নিজের উপরেই থাকলো।

তো চলুন এবার আমরা জিনিসটা একটু টেস্ট করে দেখি।
রিসেন্টলি অর্থাৎ ২৪ তারিখের পর মাইক্রোসফ্ট অফিসিয়ালি ডেভলপার চ্যানেলে তাদের উইন্ডোজ ইলেভেন এর একটি বেটা টেস্টিং আপডেট দিয়েছে। আর যেটা কিনা আজকে আমরা ব্যবহার করতে যাব।

যাদের কাছে টিপিএম 2.0 ইন্সটল করা আছে! তারা খুব সহজেই উইন্ডোজ থেকে আপডেট টা নিয়ে নিতে পারছেন।
আসলে বর্তমান বাজারে অনেক ইউজার রয়েছেন যাদের সিক্স জেনারেশন বা ফাইভ জেনারেশন, এই জেনারেশন গুলোতে রয়েছেন যাদের মাদারবোর্ডের টিপিএম ভার্শন 1.2।

তো এই ক্ষেত্রে কিন্তু আপনারা ডিরেক্টলি অফিশিয়াল ভাবে আপডেট করতে পারবেন না! তো এইজন্য আমি আপনাদেরকে যা যা করতে বলব সেই জিনিস গুলো একটু ফলো করতে হবে।

কাজটা কিন্তু একদমই সোজা। তো টিপিএম ২.০ মডিউলটি ডাউনলোড করার জন্য- এই লিংকে ক্লিক করতে হবে

এবার ডাউনলোড করে নিন উইন্ডোজ লেটেস্ট ভার্সন টি।
https://androidfilehost.com/?fid=14943124697586357631এই লিংকে ক্লিক করে উইন্ডোজ ১১ এর লেটেস্ট বেটা চ্যানেলের আপডেট টা ডাউনলোড করে নিন। ( উইন্ডোজ টা হচ্ছে ৪.৫ জিবির মত। )

তো ডাউনলোড হয়ে গেলে আপনাকে উইন্ডোজ এর যে আইএসও ফাইল টা ( সেটা উইনরার এর মাধ্যমে বা যেকোনো আনজিপ এর মাধ্যমে এক্সট্রাক্ট করে নিতে হবে। একটি স্পেসিফিক ফোল্ডারে।

চলুন আমরা ফাইলটি এক্সট্রাক্ট করি।

যেহেতু ফাইলটি একটু বড় তাই এক্সট্রাক্ট হতে একটু সময় লাগতে পারে।

তো এক্সট্রাক্ট হয়ে গেলে (আমরা এবার টিপিএম 2.0 জিপ ফাইল টা কে আনজিপ করবো ) আবারো বলি অবশ্যই ফাইলটি কিনে ব্যবহার করবেন)
আনজিপ করা হয়ে গেলে বা এক্সট্রাক্ট করা হয়ে গেলে আপনারা দেখতে পাবেন ওর মধ্যে দুইটি ফাইল আছে!
ঝটপট দুইটি ফাইল কপি করে নিন।

তো ওই দুইটি ফাইল আপনারা এখন কপি করে যেখানে আপনারা উইন্ডোজ ১১ এক্সট্রাক্ট করেছেন (সেখানে গেলে আপনারা দেখতে পারবেন রিসোর্স নামে একটি ফোল্ডার পাবেন)


এবং সেটার ভিতরে গিয়ে পেস্ট করতে হবে।

তো পেস্ট করতে গেলে এবার আপনার পিসিতে একটা ডায়লগ সো হবে (বলবে যে আপনি ওভাররাইট করতে চান কিনা)
কেননা এই দুইটি ফাইল অলরেডি সেখানে এক্সিট করে (এবং আমরা যে দুইটা ফাইল এনেছি সেখানে কিন্তু কিছু কোড গত পরিবর্তন রয়েছে)
যার মাধ্যমে পিপিএম এর যে চেক রয়েছে সেটাকে বাইপাস করে দিবে।

তো এখন যদি আপনারা উইন্ডোজ ১১ ইন্সটল করতে যান! তাহলে আপনার পিসিতে টিপিএম 2.0 আছে কি নাই এটা দেখতে যাবে না।
একদম সরাসরি ইন্সটলেশনে চলে যাবে।

তো সবকিছু ঠিকঠাক ভাবে করলে এবার আপনি সেটাপ ফাইলটিতে ক্লিক করুন।

(ক্লিক করলেই সাথে সাথে একটি উইন্ডো চলে আসবে)
যেখানে দেখবেন গ্রেটিং আপডেট লেখাটা আসছে।

তো আপনার পিসিতে যদি টিপিএম 2.0 না থাকে তাহলে গ্রেটিং আপডেট এই যে ব্যাপারটা এখান থেকে আর যাবেনা পরবর্তী ধাপে।
তো আমরা যেহেতু ওই দুটো ফাইল রিপ্লেস করেছি তাই গ্রেটিং আপডেট টা কিছুক্ষণ আপনাকে সময় নিয়ে কমপ্লিট করে পরবর্তীতে ইনস্টলেশন প্রসেস এ চলে যাবে।


তো এবার আপনারা দেখতে পারবেন দুইটা টিক মার্ক দেয়া আছে।

(তো আপনারা চাইলে কিন্তু কমপ্লিটলি ক্লিন ইনস্টল করতে পারেন)
অথবা বর্তমানে আপনার পিসিতে যে ফাইলগুলো রয়েছে ডাটা গুলো রয়েছে সেগুলো রেখে উইন্ডোজ টেন থেকে ইলেভেনের শিফট হতে পারেন।

তো একটা বিষয় বলে রাখি আপনার যদি উইন্ডোজ ১০ থেকে ১১ এ আসেন! আমি আপনাদেরকে সাজেস্ট করব একেবারে ক্লিন ইন্সটলেশনে চলে আসুন।

তাতে করে যেটি হবে এতদিন ধরে আপনারা উইন্ডোজ ১০ এ ইউজ করে আসছেন (তাদের হয়তো বা বিভিন্ন হাবিজাবি ফাইলে ভরে গেছে)
তো এটা কমপ্লিটলি ক্লিন হয়ে যাবে।
তো এবার আপনারা প্রসিড করলে।

দেখতে পারবেন বেশ কিছুক্ষণ সময় নিয়ে পিসিটা কয়েকবার রিস্টার্ট নিয়ে (আপনার সি ড্রাইভে ইন্সটল হয়ে গেছে)
দেখবেন এখানে তেমন কোনো আর পপ-আপ আসে নাই লাইক কোথায় উইন্ডোজ ইন্সটল দিবেন হাবিজাবি কিছুই আসবে না।
কেননা এই মুহূর্তে উইন্ডোজ ড্রাইভ টা তে রয়েছে সেই ড্রাইভ টাতেই ইন্সটল হয়ে যাবে অটোমেটিক্যালি।

তো কয়েকটা রিস্টার্ট রিস্টার্ট পার হওয়ার পর দেখবেন আপনার পিসি টা উইন্ডোজ ইলেভেন এর দিকে চলে এসেছে।
এবং হাই জানাচ্ছে বিভিন্ন সেটিং এডজাস্ট করে নিতে বলছে।
তো সেখানে আপনার সেটিং মাইক্রোসফট একাউন্ট লগইন করে সবকিছু রেডি করে নিবেন।
তো চলুন এক নজরে স্ক্রীনশট গুলো দেখে সেটিং অ্যাডজাস্ট করে নেয়া যাক।





তো আগেও বলেছি এখনও বলছি উইন্ডোজ ১১ আমি অনেকদিন ধরেই ব্যবহার করছি! এবং ব্যবহার করে বলবে আমার কাছে এটা কোন দিক থেকে কোন প্রবলেম হয়নি।
আমি একটি এসএসডি ব্যবহার করে খুবই এক্সপেন্সিভ এসএসডি যেটা রেড রাইট স্পিড বেশ ভালো ১.৫ জিবি / ৩ গিগাবাইট।
তো সেই হিসেবে বলা যায় উইন্ডোজ ইলেভেন এ একটু টেকনিকাল গত ইসু রয়েছে তবে নরমাল ইউজাররা এটা ফেস করতে পারবেন না।
তবে পাবলিকলি রিলিজ হয়ে গেলেই সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে আশা করছি।

আপনারা এই জিনিসটি ইউজ করতে পারেন! আমার ব্যক্তিগত মতামত যে উইন্ডোজ ১১ টা উইন্ডোজ ১০ এর চাইতে অনেক ভালো হয়েছে।
বিশেষ করে তাদের মাল্টিটাস্কিং যে ফিচার গুলা ( মানে এইবার জিনিস গুলো ব্যবহার করতে খুবই সহজ মনে হয়)
এবং বেশ কার্যকরী ও মনে হচ্ছে।

আর যেহেতু আমি খুব বেশি একটা অ্যাপ ব্যবহার করিনা, আমার পিসিতে আসলে আমার এডিটিং সফটওয়্যার বাদে তেমন কিছুই থাকেনা।
তাই আমি আসলে তেমন কোন প্রবলেমই ফেস করি নাই।

তো আমরা সবাই তো আসলে সেম কারণে পিসি ইউজ করিনা অনেকেই অ্যাপ ডেভলপমেন্ট করে ওয়েব ডেভলপমেন্ট করে অনেকে ফটো এডিটিং ভিডিও এডিটিং করে।
অনেকে জাস্ট গেমস খেলে।
এইযে ইউজার গুলো রয়েছেন তারা একজন এক এক ধরনের বাগস হয়তো বা খুঁজে পাবেন।

তবে আমার মতে ইস্ট স্টেপল এনাফ যেটা রেগুলার ইউজে ব্যবহার করা যায়!
ও আরেকটা বিষয় বলতে ভুলে গেলাম আপনারা যখন উইন্ডোজ টেন থেকে ইলেভেনে আপডেট করে চলে আসবেন।
তখন সি ড্রাইভে গেলে কিন্তু windows.old নামে একটি ফোল্ডার দেখতে পারবেন,
যেখানে আগের যে উইন্ডোজ টা ছিল সেগুলোর ফাইল ওখানে রাখা হয়েছে।
তো এটা চাইলে আপনি খুব সহজে ডিলিট করে দিতে পারেন। কারণ ওটা কোন কাজে আপনার আসবেনা।

তো এই ছিল উইন্ডোজ ১১ ইনস্টলেশন (তো আশা করি বিষয়টি বুঝতে পারছেন এটা একবারে সোজা ইন্সটল করা)
মানে অল্প দুই একটা স্টেপ তারপর কিছুক্ষণ ওয়েট করতে হয় ব্যাস আপনার উইন্ডোজ ১১ ইন্সটল হয়ে যাবে।

বিঃদ্রঃ এটি অনেক দিন ধরে নোটপ্যাডে সেভ ছিল আমার অনেক কষ্ট করে লিখেও পাবলিশ করা হয়নি! তাই ভাবলাম আজকে পাবলিশ করে দিই।

আরো পড়ুন।


২১০ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সুবিধা নিয়ে বাজারে এসেছে- Redmi Note 12 Series – PocoBD.Com

অতিরিক্ত মোবাইল ব্যবহার করলে শরীরে যেসব রোগ হয় ? – PocoBD.Com

তো আজকের মত এখানেই আশা করি সবাই ভাল থাকবেন সুস্থ থাকবেন সাবধানে থাকবেন হাফেজ।

11 thoughts on "টিপিএম ২.০ ছাড়াই উইন্ডোজ ১১ ইনস্টল করুন আপনার কম্পিউটার এবং ল্যাপটপে মাত্র ১০ মিনিটে | How To Install The Windows 11 Without TPM 2.0"

    1. Anamika Chowdhury Author Post Creator says:
      Thank you 😊
  1. Mahbub Pathan Author says:
    আপনার কাছে আমার প্রশ্ন এখন কত সাল চলতেছে? অলরেডি শেষ হওয়ার পথে। আবার নোটও দিছেন। যেহেতু আপনার অনেক আগের কষ্ট করে লেখা তাই এখন পাবলিশ করছেন ভালো কথা কিন্তু আরেকটু কষ্ট করে চাইলে তো আপনি এটিকে বর্তমান সময়ের উপযোগী করে ফেলতে পারতেন। আর কিছু শব্দ দেখে বোঝা যায় এটি আপনি অন্য কারো অনেক আগের লেখাকে ট্রান্সলেট করে অথবা নিজের মতো করে তুলে ধরেছেন।
    1. Anamika Chowdhury Author Post Creator says:
      না ভাইয়া, কারো লেখা কে ট্রান্সলেট করা হয়নি। বড় পোস্ট অনেক সময় বানান ভুল হয়! ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।
    1. Anamika Chowdhury Author Post Creator says:
      ❤️
  2. Hazmir Contributor says:
    ❤️nice
    1. Anamika Chowdhury Author Post Creator says:
      Thank you
  3. noman1310 Contributor says:
    4 gb ram, 3rd generation processor e ki windows 11 cholbe?
  4. Nishat Contributor says:
    8gb ram core i3 6th gen e ki 11 colbe?

Leave a Reply