বন্ধুরা,‌আমি সফিক। আমার এই পোস্টের বিষয় হলো আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে কিভাবে বাংলা ওয়েব ফন্ট বা গুগোল ফন্ট (Google Font) ব্যবহার করবেন।

আমরা যারা ওয়েবসাইট তৈরি করে থাকি এবং ব্যবহার করি তারা সাধারণত ওয়েব সাইটে বিভিন্ন ডিজাইনের কাস্টম ফন্ট ব্যবহার করতে পছন্দ করি।

এতে আমাদের কনটেন্ট লিখার স্টাইল অনেক সুন্দর হয়ে ওঠে।

বিশেষ করে আমরা যারা ব্লগিং করে‌ থাকি এবং বাংলা ভাষার ব্লগিং করি তারা ওয়েবসাইটে একটি ভালো কাস্টম গুগোল বাংলা ফন্ট ব্যবহার করতে চাই লেখার স্টাইল সুন্দর করার জন্য। তাই এই পোস্টে আমি আপনাদের বলে দিবো কিভাবে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে যেকোন একটি কাস্টম ফন্ট যুক্ত করতে পারবেন। চলুন শুরু করা যাক।

ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে কাস্টম ফন্ট যুক্ত করার নিয়ম

প্রথমে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের এডমিন ড্যাশবোর্ডে লগইন করতে হবে।

এরপর কাজ হল একটি প্লাগিন ইন্সটল করা। Plugin টির নাম হল Bangla Web Font. 3dot Menu>>Plugin>>Add New তে ক্লিক করে Bangla Web Font লিখে‌ সার্চ করুন।

এরপর প্লাগিনটি ইনস্টল করে নিন। এই প্লাগিনটিতে বাংলার প্রায় সকল ওয়েব ফন্ট রয়েছে। এই ফন্ট গুলো আপনি সাইটে নিজের ইচ্ছামত ব্যবহার করতে পারেন।

যেকোন একটি ফন্ট ব্যবহার করার আগে আপনি গুগল এ সার্চ করে দেখতে পারেন কোন ফোনটি সবচেয়ে ভালো এবং কোন ফন্ট এর স্টাইল টি আপনার সাইটের জন্য ব্যবহার করা প্রয়োজন। তারপর সেটি যুক্ত করতে পারবেন।

আমার মত অনুযায়ী, যে দুইটি বাংলা ফন্ট আমি সবসময় পছন্দ করে থাকি সেগুলো হলো baloo da এবং Hind Siliguri. এই দুটি বাংলা ফন্টের লেখার স্টাইল বাংলা কনটেন্ট এর জন্য খুবই ভালো দেখায় এবং এই দুটি ফোন আপনার অবশ্যই পছন্দ হতে পারে।

আমি আমার সাইটে hind Siliguri ফন্ট ব্যবহার করছি। এটি কেমন দেখায় তা আমার সাইটে গিয়ে দেখে নিতে পারেন।

ITjano.xyz

এখন আসি কিভাবে ডিফল্ট ফন্ট পরিবর্তন করে কাস্টম ফন্ট যুক্ত করবেন। ইতোমধ্যে যদি আপনি একটি ফন্ট পছন্দ করে ফেলেছেন তাহলে এখন আপনাকে সেটি পরিবর্তন করে নিতে হবে।

এজন্য আপনাকে ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাসবোর্ড থেকে থ্রি ডট মেনু>>Appearance>>Customize এ ক্লিক করতে হবে। এরপর আপনি Global নামে একটি অপশন দেখতে পারবেন এখানে ক্লিক করবেন। তারপর Typography তে ক্লিক করবেন। এরপর এখানে আপনি Base Typography নামে অপশন দেখতে পারবেন এখানে ক্লিক করবেন। আপনার ফন্ট সিলেক্ট করে উপরে publish এ ক্লিক করবেন। একটি কথা বলে রাখি, ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড থেকে কাস্টমাইজ অপশনে ক্লিক করার পর যে ওয়েবপেজটি আসে সেটি বিভিন্ন থিমের ক্ষেত্রে বিভিন্ন রকম হতে পারে। একদম ভিন্ন হয় না শুধু একটু আলাদা রকমের হতে পারে। তাই আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেসের কয়েকটি জনপ্রিয় থিম যেমন Astra, Generatepress, Ocean WP, Scema, Neve, Pagebuilder Framework এই থিম গুলো ব্যবহার করে থাকেন তাহলে যেকোনো কাস্টম ফন্ট যুক্ত করা অনেক সহজ কাজ। এবং আমি যেভাবে বললাম সেভাবে করতে পারবেন‌। অন্য থিমগুলোর‌ ক্ষেত্রে আলাদা হতে‌ পারে। ফন্ট পরিবর্তন করার পর প্লাগিনটি ডিলিট করে দিতে পারেন। এতে কোন‌ ধরনের সমস্যা হবে না। এই ছিলো আমার পোষ্ট।

আপনি‌ যদি স্বল্প মূল্যে আপনার ওয়েবসাইট হোস্ট করার জন্য ভালো ওয়েব হোস্টিং সার্ভিস খুজে থাকেন‌ তাহলে আপনি Ofaex Hosting থেকে ভালো ডোমেইন হোস্টিং সার্ভিস পেতে পারেন। আমি দুই বছর যাবৎ ব্যবহার করে আসছি আমার ওয়েবসাইট স্পিড যথেষ্ঠ ফাস্ট।


বর্তমানে অফেক্স আইটিতে চলছে বিশাল অফার 👇

অফেক্স এ ৫ জিবি সিপ্যানেল ওয়েব হোস্টিং ১০০ টাকা মাস অথবা ৮০০ টাকা প্রথম বছর, কুপনঃ CST800 

অফেক্স এ ১০ জিবি রিসেলার ওয়েব হোস্টিং মাত্র ৪২৫ টাকা মাস

অফেক্স ওয়েব হোস্টিং অ্যাফিলিএট মার্কেটিং এ ৩০% কমিশন, অ্যাফিলিএট রেজিস্ট্রেশান এ ফ্রী ৮৫ টাকা

অবশ্যই পড়ুন –

4 thoughts on "কিভাবে WordPress ওয়েবসাইটে Custom Font যুক্ত করবেন দেখুন (Best styles font)"

  1. MD Shakib Hasan Author says:
    ধন্যবাদ 🥰
    1. Mr Oxidane Author Post Creator says:
      Welcome 🥰
  2. mdatikulislam Contributor says:
    Trickbd er Notification Plugin Plugin url ta kew den. Original file link, no crack file. Thank you.

Leave a Reply