আমরা যারা ইউটিউবে কাজ করি মানে আমরা যারা কন্টেন্ট ক্রিয়েটর বা ইউটিউবার আজকের পোস্টটি শুধুমাত্র তাদের জন্য।

আর এর কারণ হলো ২০২২ সালে youtube এনেছে পাঁচটি নতুন নতুন আপডেট! যেগুলো আপনি যদি জেনে রাখেন তাহলে আপনার ইউটিউব জার্নিটা অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে। এবং আপনার ইউটিউব থেকে ইনকামটাও অনেক অংশে বেড়ে যেতে পারে।

আর এর জন্য আপনাকে এই পুরা পোস্টটি অনেক মনোযোগ সহকারে দেখতে হবে বা পড়তে হবে।


1. Strike Warning system


তো ২০২২ সালের প্রথম যে আপডেটটি রয়েছে সেটি হলো-কমিউনিটি গাইডলাইন কপিরাইট স্ট্রাইক ওয়ার্নিং সিস্টেম।

এটি যেভাবে কাজ করে আমি যদি একটু প্রাক্টিকালে বোঝাতে চাই-সাধারণত এতদিন আমাদের যদি কোন ভিডিওতে কোন প্রবলেম থাকতো বা villation থাকতো। তাহলে ইউটিউব যেটা করত ডিরেক্টলি youtube আমাদের ভিডিওতে কমিউনিটি গাইডলাইন স্ট্রাইক দিয়ে দিত।

কিন্তু আপনাকে বলে রাখি এখন থেকে এই পুরো সিস্টেমটা বদলে যাবে।
এখন থেকে যে সিস্টেম হবে সেটা হল-যদি আপনার ইউটিউব ভিডিওতে ভায়োলিশন জাতীয় কোন কিছু পাই।
তাহলে সঙ্গে সঙ্গে ইউটিউব থেকে আপনার ফোনে একটা নোটিফিকেশন চলে আসবে।

এবং এই নোটিফিকেশনের মাধ্যমে আপনি সিম্পলি চেক করতে পারবেন- আপনার ভিডিওতে কোন জিনিসটা youtube এর কাছে ভায়োলেশন মনে হয়েছে।
এবং সেই সাথে ইউটিউব আপনাকে কয়েকটা প্রশ্ন করবে।

এবং আপনি যদি প্রশ্নগুলোর সঠিক আনসার করতে পারেন। বা আপনার কাছে যদি মনে হয় যে না আপনার ওই ভিডিওতে ভায়োলেশন হওয়ার মতো কিছু নেই।
তো সেই ব্যাপারটা আপনি চাইলে সরাসরি ইউটিউবের কাছে সাবমিট করতে পারেন রিভিউ করার জন্য।

তো এরপর হবে কি youtube আপনার ঐ ভিডিওটি পুনরায় রিভিউ করে দেখবে! এবং তারপর আপনাকে কনফার্ম করবে।
আর এর মানে হলো আপনি অনেকটা সময় পাচ্ছেন-আপনার ওই ভিডিওতে স্ট্রাইক আসবে কি আসবে না সেটা নির্ধারণ করার জন্য।

তারমানে সবকিছু মিলিয়ে এটা অনেক ভালো কিন্তু একটা সিস্টেম হলো। একটা সময় ছিল যে হুট করে একটা কমিউনিটি গাইডলাইন চলে আসতো। এখন এটা টোটালি হবে না।

এখন যদি আপনার ভিডিওতে কমিউনিটি গাইডলাইন স্ট্রাইক আসতে চাই তাহলে প্রথমে আপনার কাছে একটা নোটিফিকেশন আসবে দেন আপনি সেটা রিভিউ করবেন।
এরপর যখন আপনি কনফার্ম করবেন তারপর গিয়ে youtube ডিসাইড করবে যে এখানে কমিউনিটি গাইডলাইন স্ট্রাইক আসবে কি আসবে না।


২। Subscribe Group

আপনি এখন থেকে সাবস্ক্রাইবার গ্রুপ ক্রিয়েট করতে পারবেন।
এর মানে যদি বোঝাই তাহলে দেখেন আমরা কিন্তু অনেক অনেক ইউটিউব চ্যানেল বা ফেভারিট ইউটিউব চ্যানেলগুলো সাবস্ক্রাইব করে রাখি?

তো এই সাবস্ক্রাইব যে লিস্ট গুলা থাকে, ধরে নিন আপনি পাঁচটা গেমিং চ্যানেল খুব পছন্দ করেন। পাঁচটা মিউজিক চ্যানেল পছন্দ করেন।
কিন্তু আপনি যখন সেই চ্যানেলগুলো সাবস্ক্রাইব করেছেন তখন কিন্তু সেটা একটা লিস্ট আকারে চলে আসে রাইট?

তো এই জিনিসটা আপনি চাইলে সিপারেট সিপারেট গ্রুপ করে রাখতে পারেন। এক্সাম্পল- যে আপনার পাঁচটা গেমিং চ্যানেল পছন্দ সেই গেমিং চ্যানেলগুলো আপনি আলাদা করে রাখতে পারবেন।

প্লাস আপনার পাঁচটি মিউজিক চ্যানেল পছন্দ হয় সেগুলো আপনি আলাদা করে সাবস্ক্রাইব করে রাখতে পারবেন।
তো এই সুন্দর গ্রুপিং সিস্টেমটা ইউটিউব নতুন এনেছে।


৩। লাইভ স্টিম.

দেখেন এতদিন হলো যে আপনার ইউটিউব চ্যানেল আপনি একা চালাতেন? এবং আপনার ইউটিউব চ্যানেলে যদি আপনি কাউকে অ্যাক্সেস দিতে চান।
সে ক্ষেত্রে আপনি এডিটর, এডমিন এভাবে কিন্তু এক্সেস দিতে পারতেন।

তাহলে যেটা হতো যে ব্যক্তি আপনার youtube চ্যানেলের এডিটর হবে। সে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের সকল বিষয়বস্তু এডিট করতে পারবে। কিন্তু সে কোন কিছুর এক্সেস নিজের মত করে নিয়ে নিতে পারবেন না।

আপনার চ্যানেলের ইমেইল পাসওয়ার্ড আপনার কাছেই থাকবে। আপনি শুধুমাত্র তাকে এডিটিং অ্যাক্সেস টা দিতে পারবেন।
ঠিক একইভাবে ভিউ এক্সেস দিতে পারবেন , এডমিন এক্সেস দিতে পারবেন। আর এই পুরা সিস্টেমটাকে ইউটিউব এনেছে এখন লাইভ স্ট্রিম এর মাধ্যমে।

মানে আমরা যারা গেম খেলি বা ইউটিউবে লাইভ স্ট্রিম করে থাকি। তাদের জন্য এখন এই ফ্যাসিলিটি টা চলে এসেছে।

এক্ষেত্রে আপনি যেটা করতে পারবেন, আপনি যদি লাইভ স্ট্রিম করে থাকেন তাহলে আপনি যে কাউকে লাইভ স্টিমের এডিটর, মডারেটর, ভিউয়ার তৈরি করতে পারবেন।

এবং সে আপনার ওই লাইভ স্ট্রিমের মধ্যে নির্দিষ্ট অংশ অংশ অধিকার পাবে। মানে সে এখানে কাজ করতে পারবে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের কোনরকম কোন পাসওয়ার্ড না নিয়েই।

তো আসলে একটি আসলে কাজের একটি আপডেট স্পেশালি যারা গেমার এবং লাইভ স্ট্রিম করেন তাদের জন্য।

এবার সবচাইতে ইম্পরট্যান্ট আপডেট হল ৪ নাম্বারে


৪। সুপার thanks।


তো এই সুপার থ্যাংকস জিনিসটা আসলে কিভাবে কাজ করে আমি একটু বলি। যদিও এই জিনিসটি এখনো বাংলাদেশে আসে নাই তবে খুব তাড়াতাড়ি বাংলাদেশে এসে যাবে বলে আমরা সবাই মনে করতেছি আর কি।

তো এটি কিভাবে কাজ করে? সুপার থ্যাংকস হল যদি আপনি কোন ভিডিও প্লে করেন। এবং প্লে করার পরে দেখবেন নিচে লাইক ডিসলাইক বা শেয়ার অপশন থাকে?

তবে মজার ব্যাপার হলো youtube এর পাশাপাশি আরেকটি নতুন অপশন যোগ হবে যার নাম-সুপার থ্যাংকস।

এবং আপনি যদি সুপার থ্যাঙ্কস এ থেকে ক্লিক করেন। তাহলে সরাসরি আপনার ফেভারিট ইউটিউবার কে কিছু অর্থ কিংবা স্টিকার ডোনেট করতে পারবেন।

মানে মনে করেন কারো একটা ভিডিও আপনার রিয়েল লাইফে অনেক বেশি কাজে লেগেছে, আপনি অনেক হেল্প পেয়েছেন।
এখন আপনি চাচ্ছেন তাকে আপনি ২০০ টাকা বা ১০০ টাকা বা ৫০০ টাকা ডোনেট করতে বা তাকে গিফট করতে।
তো এটি আপনি চাইলেই সুপার থ্যাংকস ফিচার এর মাধ্যমে করতে পারবেন।

এবং মজার ব্যাপার হলো এই পুরা টাকাটাই সেই কনটেন্ট ক্রিয়েটর পেয়ে যাবে। এটার অর্থ হল এই ফিচার এর মাধ্যমে আমরা যারা কন্টেন্ট ক্রিয়েটর তাদের কিন্তু ইনকামটা অনেক অংশে বেড়ে যাবে।

সাপোজ আমি একটা ভিডিও তৈরি করলাম সেই ভিডিওটি আপনার অনেক ভালো লাগলো এবং উপকারী লাগলো।
এবং আপনি চাচ্ছেন আমার ওই ভিডিওটাতে কিছু ডোনেট করতে, এরকম ভাবে যদি ১০ জন ২০ জন ৫০ জন একটা ভিডিওতে ডোনেট করে। তাহলে কিন্তু এই পুরা টাকাটাই আমি পেয়ে যাচ্ছি।

তার মানে ইউটিউব তো একটা ইনকাম আমাকে দিচ্ছেই প্লাস আপনি যে super thanks এর মাধ্যমে যে টাকাটা আপনি আমাকে দিচ্ছেন সেটিও কিন্তু আমি আবার পেয়ে যাচ্ছি।

তো এই দুইটা মিলিয়ে কিন্তু আমি পেমেন্ট টা পাব একসাথে। তোর সুপার থ্যাংস এটি একটি অসাধারণ সিস্টেম যেটি বাংলাদেশে এখনো অ্যাভেলেবেল হয়নি।
তবে আশা করা যায় সামনের মাসের মধ্যেই এটি এভেলেবেল হয়ে যাবে।

আজকের মত এখানে ই শেষ করছি আশা করছি খুব শিগগিরই নতুন কিছু নিয়ে হাজির হচ্ছি সেই পর্যন্ত সাথেই থাকুন ট্রিকবিডির ধন্যবাদ।❤️

6 thoughts on "এবছরের ইউটিউবের ৪ টি নতুন আপডেট! সবার জন্যই মোটামুটি সুখবর।"

  1. Rakib Hosen Author says:
    fb inbox chek bro #sabbir
  2. Rakib Author says:
    স্কাম করে বাঁশ 😵😵
  3. TrickBD Support Moderator says:
    Banned🤐
    Zero tolerance against scan/fraud.

Leave a Reply