বর্তমানে অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের সবচেয়ে আপডেট এবং জনপ্রিয় ভার্সন হলো Android 10. এখনকার সময়ে বের হওয়া সকল ফোনেই অ্যান্ড্রয়েড টেন পাওয়া যাচ্ছে এবং এর সকল আছে ফিচারগুলো ব্যবহার করা যাচ্ছে। কিন্তু গুগল অ্যান্ড্রয়েড ডেভলপমেন্টকে আরও উন্নত করার লক্ষ্যে অ্যান্ড্রয়েডের সর্বোচ্চ Android 11 নিয়ে আসছে। এটা অন্যান্য অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে তুলনায় অনেক বেশি উন্নত এবং নতুন নতুন ফিচারর্স যুক্ত। ২০২০ সালেই এটির অফিশিয়ালভাবে লাঞ্চের কথা ছিল এবং গুগল তাদের কথা মতো অফিশিয়াল ভাবে সেপ্টেম্বরের ৯ তারিখে লাঞ্চ করে ফেলেছে। এতে অনেক নতুন নতুন ফিচার রয়েছে যেগুলো আপনার অ্যান্ড্রয়েড এর আগের ভার্শনগুলোর মধ্যে কোনোটাতে পাবেন না। তার আগে আপনাদেরকে বলে দিতে চাই যে, Android Pie 9.0 ই শেষ ভার্সন তারপর থেকে আর কোন মিষ্টি জাতীয় বা চকলেট জাতীয় নাম দিয়ে আর এন্ড্রয়েড ভার্সন বের হবে না। তো চলুন জেনে নেয়া যাক কি কি ফিচার পাচ্ছেন অ্যান্ড্রয়েড ১১ এ,


• প্লে স্টোর থেকে সিস্টেম আপডেট
• কনভারসেশন নোটিফিকেশন
• নোটিফিকেশন হিস্টোরি
• ওয়েলপেপার প্যারালাক্স ইফেক্ট
• নতুন পাওয়ার মেন্যু
• নতুন ভলিউম বার ও মিডিয়া কন্ট্রোল
• বিল্ট-ইন স্কিন রেকর্ডিং, ইন্টারনাল/এক্সটার্নাল অডিও
• আনলিমিটেড ভিডিও ফাইল সাইজ
• রিসাইজেবল পিকচার-ইন-পিকচার উইন্ডো
• বাবল (চ্যাট হেড)
• অ্যাপ সাজেশন

• ডিফল্ট স্টক ক্যামেরা
• রিসেন্ট মেন্যুতে ‘স্ক্রিনশট ও টেক্সট’ সিলেক্ট বাটন
• ৩টি নতুন আইকন শেপ
• ১১৭টি নতুন ইমোজি
• ডার্ক থিম শিডিউল
• এডিবি ইনক্রিমেন্টাল এপিআই
• ওয়ান-টাইম পারমিশন (লোকেশন)
• অটো-রিসেট পারমিশন
• ডেডিকেটেড জেশ্চার সেনসিটিভিটি কন্ট্রোল
• স্মার্ট ডিভাইজ কন্ট্রোল
• স্মার্ট হোম কন্ট্রোল

অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর সবচেয়ে বড় তিনটি ফিচার হলো বিল্ডিইন স্কিন রেকর্ডার, বাবল (চ্যাট হেড) এবং কনভারসেশন নোটিফিকেশন
উইথ নোটিফিকেশন হিস্টোরি।

প্রথমে আসি আমরা স্ক্রিন রেকর্ডার ফিচার নিয়ে,

স্কিন রেকর্ডার

বর্তমানে আমরা ফোনের স্ক্রিন রেকর্ড করার জন্য বিভিন্ন থার্ড পার্টি স্ক্রিন রেকর্ডার অ্যাপ ব্যবহার করি। আবার কিছু কিছু ফোনে (যেমন Xiaomi, Realme, Techno) মোবাইল গুলোতে বিল্ডইন অবস্থাতেই স্ক্রিন রেকর্ডার দেঈয়া হয়। কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড ১১ এ যেকোনো ফোনেই বিল্ডইন স্ক্রিন রেকর্ডার পাওয়া যাবে।

চ্যাট হেড বাবল

এই নামটা আপনাদের কাছে অনেকের কাছেই অপরিচিত হতে পারে। আমি একটু ক্লিয়ার করে দিই আমরা যখন ফেসবুক মেসেঞ্জার অ্যাপ টি ব্যবহার করি, তখন কোনো ম্যাসেজ আসলে সেটা কিন্তু ছোট্ট গোল করে স্ক্রিনে কোন এক পাশে চলে আসে। এটাকে চ্যাট হেড বাবল বলে। অ্যান্ড্রয়েড ১১ এ এই ফিচারটি আপনাদের সকল ম্যাসেজিং এপই পাবেন। যেমন ধরুন, WhatsApp, Viber, IMO এমনকি ফোনের সাধারণ মেসেজ এপ গুলোতেই এভাবে আসবে।

নোটিফিকেশন

আমার প্রায় সব এপ থেকেই বিভিন্ন নোটিফিকেশন পেয়ে থাকি। কিন্তু এখানে নোটিফিকেশনগুলো অন্যরকম ভাবে আসবে এবং সেগুলোর হিস্টোরি থাকবে। তাছাড়াও আপনারা শুধু মাত্র Notification টিতে ক্লিক করে সেই নোটিফিকেশন বার থেকেই তাদের রিপ্লাই দিতে পারবেন। এমনকি আপনার নোটিফিকেশনগুলো হিস্টরি আকারে দেখা যাবে।

এছাড়াও আরো অনেকগুলো ফিচার রয়েছে যেগুলো আপনারা নিজেরাই বুঝতে পারবেন। সেগুলো নিয়ে তো আগেই বলে দিয়েছি। তো সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর জন্য আপনাদের রইলো শুভকামনা।

সময় পেলে এই পোস্টটি পড়বেন, ড্রপবক্স কি এবং ড্রপবক্স ব্যবহার করে কি কি সুবিধা পাওয়া যায়।

6 thoughts on "চলুন জেনে নেই Android 11 এ কি কি ফিচারস্ থাকছে।"

  1. Shakib Shakib Author says:
    কষ্ট একটাই pixal user ছাড়া বর্তমানে কেউ এর স্বাদ গ্রহন করতে পারবে না


    1. Jibon Roy Jibon Roy Author Post Creator says:
      কিছুই করার নাই, ভাই
    2. Shakij Mahamud Shakij Mahamud Contributor says:
      Samsung note 20 te android 11 with One UI 3.0 update push kora hoiche
  2. Mithun Mithun Contributor says:
    Android 10 use korci… waiting for Android 11
  3. RAFI Contributor says:
    Assa vai … Android Version ke UPGRADE kora jai ? … Jodi jai tahola kevaba ? ..Ektu jodi bolten tahola valo hoto
    1. YASIR-YCS YASIR-YCS Author says:
      Official vabe update thakle setting about phone softwares update theke dewa jai. Jodi officail update na thake tahole root kore custom rom dite paren.

Leave a Reply