অবশ্যই সবাই পড়বেন কেননা এর মাধ্যমে আপনি আজ থেকে সাবধান হয়ে যেতে পারবেন-

আপনার বাংলালিংক,এয়ারটেল,গ্রামীনফোন এ
অনলাইন একাউন্ট সাভির্স এর মাধ্যমে আপনার মোবাইল নম্বর এর সকল ইনফরমেশন এখন যে কেউ দেখতে পারবে,আপনার সিমটি তুলে নিতে পারবে। যদি সে কোনভাবে সিমের কোডটি জানতে পারে।আর আমরা অনেকেই হয়ত অসকতায় মোবাইল রেখে চলে যাই এদিক সেদিক অথবা কেউ যদি একটু ফোন করতে চায় তাহলেও তাকে দিয়ে দেই। অনকে সময় মুখের উপর নাও করতে পারি না।এতে যদি সে কোনভাবে এস,এম এস করে/অন্য মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহার করে কোডটি জানতে পারে তাহলেই তার আর আপনাকে প্রয়োজন হবে না(বাংলালিংকও এয়ারটেল এ)।
সে আপনার পুরো ইনফরমেশন পেয়ে যাবে মাত্র ৪০সেকেন্ড সময়ের মধেই কেননা sms করতে বেশি সময় লাগে না।

এখন আপনাকে ছাড়াই যা সে করতে পারবে-
১.আপনার টুটাল ইনফরমেশন দেখতে পারবে।
যেমন-আপনার সকল ইনকামিং ফোন(নম্বার সহ)।
আউটগোইং ফোন, কখন,কয়টার সময় এবং কতক্ষন কথা হয়েছে এগুলো(নাম্বার সহ)।
২.এস,এম এস(কি লেখা ছিল এগুলো দেখা যাবে না)

৩.আপনার একাউন্ট এ কত টাকা এখন রয়েছে।ইচ্ছা করলে সে এখান থেকে টাকা ট্রান্সফার করে নিতে পারবে ই-টপ আপ এর মাধ্যমে।
৪.আপনার FNF নম্বর।
৫.রিচাজ হিস্টরি।
৬.আপনার সিমটি কার নামে আছে এখন।
৭.আপনার নাম্বার থেকে অন্য কাউকে এস এম এস করতে পারবে।
যা ক্ষতি সে করতে পারবে আপনার-
*আপনার নাম্বার হতে অন্য কাউকে SMS দিতে পারবে,অপরাধ জনিত কাজ করতে পারবে।
*মোবাইলের টাকা চুরী করতে পারবে।
*আপনার নাম্বারটি তুলে ফেলতে পারবে।
*আপনার ইনফরমেশনগুলো জেনে আপনাকে ব্যাকমেইল করতে পারবে।
*সুতরাং নিজের বাংলালিংক ও এয়ারটেল নাম্বার টি যাতে অন্য কেউ অনলাইন এ রেজিস্টেশন করতে না পারে তার দিকে সবর্দা লক্ষ্য রাখবেন।

এবং নিম্মের কাজগুলো হতে অবশ্যই বিরত থাকবেন।

সতকর্তাঃ

১.কখনো কাউকে মোবাইল দিয়ে চলে যাবেন না(অবশ্য এখানে বিশ্বাসযোগ্য ব্যক্তিগুলো ছাড়া)।
২.কখনো কেউ যদি ফোন করে বলে তোমার নাম্বারে একটি -এস এম এস এসেছে কোডটি দাও অথবা এস এম এসটি ফরওয়াড করে দাও অবশ্যই তা থেকে বিরত থাকবেন এবং এস এম এসটি ডিলেট করে দিবেন সাথে সাথে যাতে করে পরবর্তী সময়ে সে তা দেখতে না পারে।

One thought on "সর্তকতামূলক টিউনঃ আপনার মোবাইল নাম্বারটি অন্য কারোর নজরদারিতে পরতে পারে “অবশ্যই পড়ুন” !"

  1. Ks Shuvo Ks Shuvo Contributor says:
    Tnx..


Leave a Reply