আসসালামু আলাইকুম । আশা করি সকলে ভালো আছেন । আমিও আলহামদুলিল্লাহ আপনাদের দোয়ায় অনেক ভালো আছি । যাই হোক আমি বেশি কথা বাড়াতে চাই না সরাসরি পোস্টের কথাতে চলে আসতে চায় ।

অনেকেই হয়তো পোস্টের টপিক দেখেই বুঝে ফেলেছেন যে আজ আমি কোন বিষয় নিয়ে লিখতে যাচ্ছি । আজ আমি আপনাদের সাথে কুফরের পরিচয় ও কাফিরের পরিচয় সম্পকে বলতে যাচ্ছি । আশা করি সকলে আমার আজকের পোস্ট পড়বেন । ভালো লাগলে লাইক এবং কমেন্ট করবেন ।


কুফরের পরিচয় :->


কুফর শব্দটির আভিধানিক অথ হলো অস্বীকার করা, অবিশ্বাস করা, অকৃজ্ঞতা প্রকাশ করা, গোপনা করা বা ঢেকে রাখা ইত্যাদি । ইসলামি পরিভাষায় কুফর বলতে বোঝায় আল্লাহ তায়ালার দেওয়া দীন ও ইসলামের মৌলিক বিষয়ের যে কোন একটির প্রতি অবিশ্বাস করাকে কুফর বলে । কুফর হলো ইমানের বিপরীত । কারণ ইসলামের মৌলিক বিষয়গুলোর সবগুলোর প্রতি বিশ্বাসের নাম হলো ইমান । আর ইসলামের মৌলিক বিষয়গুলোর প্রতি কোন একটির প্রতি অবিশ্বাস করা হলো কুফর ।


কাফিরের পরিচয় :->


যে ব্যাক্তি কুফরে লিপ্ত হয় অথাৎ ইসলামের মৌলিক বিষয়গুলোর কোন একটিতে অস্বীকার করে তাকে বলা হয় কাফির । কাফিরের আভিধানিক অথই হলো অবিশ্বাসকারী । মানুষ অনেকভাবে কাফির হতে পারে । কিছু নমুনা নিচে তুলে ধরা হলো :~

১। আল্লাহ তায়ালার অস্তিত্ব অস্বীকার করা । যেমন আল্লাহ নেই এমন কথা বলা ।

২। আল্লাহ তায়ালার গুণাবলি মেনে না নেওয়া । যেমন আল্লাহ আমাদের রিজিকদাতা বা খাদ্য দেয় না এমন কথা বলা ।

৩। ইমানের মৌলিক সাতটি বিষয়ে স্বীকার না করা । যেমন : ফেরেশতা,আখিরাত, তকদির ইত্যাদি । {এগুলো নিয়ে পরবতী আটিকেলে আলোচনা করা হবে}

৪। ইসলামের মৌলিক ইবাদতগুলো স্বীকার না করা । যেমন : সালাত,সাওম, হজ ইত্যাদি ।

৫। হালাল দ্রব্যকে হারাম এবং হারাম দ্রব্যকে হালাল মনে করা । যেমন : গরুর গোশত খাওয়া হালাল । কিন্তু গরুর গোশতকে হারাম মনে করা না খাওয়া । আবার মদ,জুয়া ইত্যাদি খারামকে হালাল মনে করা ।

৬। ইচ্ছাকৃতভাবে কাফিরদেরকে অনুকরণ বা অনুসরণ করা । তাদের ধমীয় চিহ্ন ব্যাবহার করা ।

৭। ইসলামের কোন গুরুত্বপূণ বিষয় উপহাসমূলক দৃষ্টিতে দেখা বা ঠাট্টা করা ।


|| উল্লিখিত কাজগুলো করার মাধ্যমে মানুষ কাফির হয়ে যেতে পারে । তাই এরকম কাজ থেকে আমাদের সবারই বিরত থাকা উচিত । ||


কুফরের অনেক কুফল রয়েছে । যেমন :-

১। অন্যের প্রতি অকৃতজ্ঞতা প্রকাশ ।

২। নিজের প্রতি হতাশা সৃষ্টি ।

৩। অনৈতিক কাজের প্রতি প্রসার ঘটা ।

৪। মৃত্যুর পর জাহান্নামে অবস্থান । ইত্যাদি ।

তো আজ এতটুকুই ছিল । সবাইকে ধন্যবাদ আমার আজকের আটিকেলটি পড়ার জন্য ।

2 thoughts on "কুফর ও কাফিরের পরিচয় এবং এর পরিণতি"

  1. MD Shakib Hasan Author says:
    ধন্যবাদ 🥰

Leave a Reply