আসসালামু আলাইকুম
সবাই কেমন আছেন?
আজ আমি আপনাদের ইসলামিক ২৫ টি প্রশ্ন ও এই প্রশ্নের উত্তরে রাসূলুল্লাহ (সাঃ) কি বলেছেন তা আপনাদের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করবো।
তো চলুন শুরু করা যাক।

১. প্রশ্নঃ আমি ধনী হতে চাই?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, অল্পতুষ্টি অবলম্বন কর, ধনী হয়ে যাবে।
২. প্রশ্নঃ আমি সবচেয়ে বড় আলেম (ইসলামী জ্ঞানের অধিকারী) হতে চাই!
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, তাক্বওয়া (আল্লাহ্ ভীরুতা) অবলম্বন কর, আলেম হয়ে যাবে।
৩. প্রশ্নঃ সম্মানী হতে চাই!
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, সৃষ্টির কাছে চাওয়া বন্ধ কর; সম্মানী হয়ে যাবে।
৪. প্রশ্নঃ ভাল মানুষ হতে চাই!
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, মানুষের উপকার কর।
৫. প্রশ্নঃ ন্যায়পরায়ণ হতে চাই!
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, যা নিজের জন্য পছন্দ কর, তা অন্যের জন্যেও পছন্দ কর।
৬. প্রশ্নঃ শক্তিশালী হতে চাই?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, আল্লাহর উপর ভরসা কর।
৭. প্রশ্নঃ আল্লাহর দরবারে বিশেষ মর্যাদার অধিকরী হতে চাই!
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, বেশী বেশী আল্লাহকে স্মরণ (জিকির) কর।
৮. প্রশ্নঃ রিযিকের প্রশস্ততা চাই!
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, সর্বদা অযু
অবস্থায় থাকো।
৯. প্রশ্নঃ আল্লাহর কাছে সমস্ত দোয়া কবুলের আশা করি!
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, হারাম খাবার হতে বিরত থাকো।
১০. প্রশ্নঃ ঈমানে পূর্ণতা কামনা করি!
উঃরাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, চরিত্রবান হউ৷

১১. প্রশ্নঃ কেয়ামতের দিন আল্লাহর সাথে গুনামুক্ত হয়ে সাক্ষাৎ করতে চাই?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, জানাবত তথা গোসল ফরজ হওয়ার সাথে সাথে গোসল করে
নাও।
১২. প্রশ্নঃ গুনাহ্ কিভাবে কমে যাবে?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, বেশী বেশী
ইস্তেগফার (আল্লাহর নিকট কৃত গুনাহের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা) কর।
১৩. প্রশ্নঃ কেয়ামত দিবসে আলোতে থাকতে চাই!
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, জুলুম
করা ছেড়ে দাও।
১৪. প্রশ্নঃ আল্লাহ্ তা’য়ালার অনুগ্রহ কামনা করি?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন,
আল্লাহর বান্দাদের উপর দয়া-অনুগ্রহ কর।
১৫. প্রশ্নঃ আমি চাই আল্লাহ্ তা’য়ালা আমার দোষ-ত্রুটি গোপন রাখবেন?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, অন্যের দোষ-ত্রুটি গোপন রাখ।
১৬. প্রশ্নঃ অপমানিত হওয়া থেকে রক্ষা পেতে চাই ?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, যিনা (ব্যভিচার) থেকে বেঁচে থাকো।
১৭. প্রশ্নঃ আল্লাহ্ এবং তাঁর রাসূল (সাঃ) এর নিকট প্রিয় হতে চাই ?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, যা আল্লাহ্ এবং তাঁর রাসূলের (সাঃ) এর নিকট পছন্দনীয় তা নিজের জন্য প্রিয় বানিয়ে নাও।
১৮. প্রশ্নঃ আল্লাহর একান্ত অনুগত হতে চাই।
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, ফরজ
সমূহকে গুরুত্বের সহিত আদায় কর।
১৯. প্রশ্নঃ ইহ্সান সম্পাদনকারী হতে চাই!
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, এমন ভাবে
আল্লাহর এবাদত কর যেন তুমি আল্লাহকে দেখছ
অথবা তিনি তোমাকে দেখছেন।
২০. প্রশ্নঃ ইয়া রাসূলুল্লাহ! (সাঃ) কোন বস্তু গুনাহ্ মাফে সহায়তা করবে?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, ক) কান্না। (আল্লাহর নিকট, কৃত গুনাহের জন্য। খ) বিনয়। গ) অসুস্থতা।)
২১. প্রশ্নঃ কোন জিনিষ দোযখের ভয়াবহ
আগুনকে শীতল করবে?

উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, দুনিয়ার মুছিবত সমূহ।
২২. প্রশ্নঃ কোন কাজ আল্লাহর ক্রোধ ঠান্ডা করবে?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন,
গোপন দান এবং আত্মীয়তার সম্পর্ক রক্ষা।
২৩. প্রশ্নঃ সবচাইতে নিকৃষ্ট কি?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, দুশ্চরিত্র এবং কৃপণতা।
২৪. প্রশ্নঃ সবচাইতে উৎকৃষ্ট কি?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, সচ্চরিত্র,
বিনয় এবং ধৈর্য্য।
২৫. প্রশ্নঃ আল্লাহর ক্রোধ থেকে বাঁচার উপায় কি?
উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন,
মানুষের উপর রাগান্বিত হওয়া পরিহার কর।
আল্লাহ্ তা’য়ালা আমাদের সবাইকে আমল করার
তৌফিক দান করুন…।
তো আজ এই পর্যন্তই। সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এই কামনা নিয়ে আজকের মতো এখানেই বিদায় নিচ্ছি।
★যদি কোনো সমস্যা বা দরকার হয় তাহলে আমার সাথে যোগাযোগ করুন নিম্নউক্ত মাধ্যমেঃ

★Email: [email protected]
.
★Facebook
আল্লাহ হাফেজ
ধন্যবাদ সবাইকে

31 thoughts on "[ইসলামিক] আসুন দেখে নিন, ২৫টি প্রশ্ন ও রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর উত্তর।"

  1. OndhoKobi OndhoKobi Author says:
    nice!


    1. Akash101 Akash101 Author Post Creator says:
      thanks
  2. FAIHAD Contributor says:
    একে ত ইসলামিক কথা আরেকে অনেক সুন্দর
    good post
    1. Akash101 Akash101 Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ। সুন্দর মন্তব্যের জন্য
    1. Akash101 Akash101 Author Post Creator says:
  3. love trickbd love trickbd Contributor says:
    …জাযাকাল্লাহ খাইরান…
    1. Akash101 Akash101 Author Post Creator says:
  4. Ajidur Rahman Subscriber says:
    ইসলামিক একটা পোস্ট করলেন..ভালো পোস্ট!
    কিন্তু তথ্যসূত্র উল্লেখ করলে ভালো হতো!
    1. Akash101 Akash101 Author Post Creator says:
      তথ্যসূত্র গুলো দিতে না পেরে আমি আন্তরিক ভাবে দুঃখিত।
    2. Akash101 Akash101 Author Post Creator says:
      আপনার সুন্দর মতামতের জন্য ধন্যবাদ


  5. MD Shakib Hasan MD Shakib Hasan Subscriber says:
    অসাধারণ পোষ্ট এই রকম পোষ্ট আরো চাই ।
    1. Akash101 Akash101 Author Post Creator says:
      সাথেই থাকুন
    1. Akash101 Akash101 Author Post Creator says:
      thanks
  6. mdriaz.rs mdriaz.rs Contributor says:
    ভাল লাগছে ভাই
    1. Akash101 Akash101 Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ
  7. Anondo Edit Zone CoCKroAcH Author says:
    আরো এমন পোস্ট কইরেন ভাই।
    1. Akash101 Akash101 Author Post Creator says:
      সাথেই থাকুন
  8. Safiullah Arqami SafiullahArqami Contributor says:
    thank you


  9. 《ßHĀØÑ》 Shaon Ahmed Siam Contributor says:
    💘❤💔💕💜💚💙💟💞💥👔👗💭💟💞👕👗👙💭💌👕🎒⛑👒👡👝👞👢👢🎩 🎓 vai valo post korar jonno gift korlam
  10. Rumon Mahmud Rumon1997 Subscriber says:
    khub valo post
  11. Rumon Mahmud Rumon1997 Subscriber says:
    khub valo post
  12. unknown unknown Contributor says:
    ৩. প্রশ্নঃ সম্মানী হতে চাই!

    উঃ রাসূলুল্লাহ (সাঃ) ইরশাদ করলেন, সৃষ্টির কাছে চাওয়া বন্ধ কর; সম্মানী হয়ে যাবে।
    বুঝি নাই কথা টা
    আল্লাহর কাছে চাব না নাকি ?

    1. mahamud79 mahamud79 Contributor says:
      সৃষ্টির কাছে নয়, স্রষ্টার কাছে চাও।
      অর্থাৎ আল্লাহর কাছে চাও, আল্লাহর সৃষ্টির কাছে অর্থাৎ মানুষ, পীর, সাধু বাবাদের কাছে নয়।আশা করি বুঝেছেন।
  13. Forhad Rahman Contributor says:
    মাশাল্লাহ! ❤
  14. kawsarsp Subscriber says:
    প্রতিটি কথার রেফার দরকার ছিল যেহেতু কথাগুলো রাসূলের সা.!
  15. Rafi Lion Khan Subscriber says:
    অসাধরন পোস্ট ভাই।
    অনেক ভালো লাগলো তথ্য গুলো পেয়ে।
    আশা করি আরো তথ্য তুলে ধরবেন??
  16. HF SUMON HF SUMON Contributor says:
    সকল কে তা আমল করার জন্য, মহান আল্লাহতালা আমাদেরকে হেদায়েত করুণ

Leave a Reply