Be a Trainer! Share your knowledge.
Home » Movie Review » ⭐️ মুভিজগতে ইতিহাস সৃষ্টি করা ফিল্ম সিরিজ The Dark Knight Trilogy দেখুন ডুয়াল অডিও (হিন্দি-ইংলিশ অডিও) এবং বাংলা সাবটাইটেল এ! 🔥

⭐️ মুভিজগতে ইতিহাস সৃষ্টি করা ফিল্ম সিরিজ The Dark Knight Trilogy দেখুন ডুয়াল অডিও (হিন্দি-ইংলিশ অডিও) এবং বাংলা সাবটাইটেল এ! 🔥

ইউটিউবে ট্রিকবিডিকে সাবস্ক্রাইব করুন

আসসালামু আলাইকুম।আশা করি সবাই ভালো আছেন।আমিও ভালো আছি।

আজকে আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি আলোড়ন সৃষ্টিকারী মুভি The Dark Knight Trilogy মুভির রিভিউ ও ডাউনলোড লিংক নিয়ে।ট্রিকবিডিতে পূর্বেও এ মুভির নাম অনেক জায়গায় উল্লেখ থাকলেও রিভিউ সহ লিংক কোনো পোস্টেই দেয়া হয় নি।তাই আমি আজকে আপনাদের জন্য নিয়ে আসলাম রিভিউ সহ লিংক।

তো চলুন শুরু করা যাক।

মুভি সিরিজঃ The Dark Knight Trilogy

Genre: Action, Fantasy, Adventure, Thriller

মোট মুভি ৩ টি।

  1. Batman Begins (2005) – Imdb 8.2/10
  2. The Dark Knight (2008) – Imdb 9/10
  3. The Dark Knight Rises (2012) – Imdb 8.4/10

Cast: Christian Bale, Morgan Freeman, Health Ledger, Gary Oldman, Tom Hardy, Cillian Murphy ,Kate Holmes Etc.

*** হালকা স্পয়লার সহ রিভিউ***

Batman Begins (2005)

সুপারহিরো! শব্দটা শুনলেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে সুপারন্যাচারাল অ্যাকশন,ফ্যান্টাসি, একটা পাব্লিক ইমেজ যার ফ্যান-ফলোয়ার অগণিত।সমাজের সুবিধাবাদী লোকদের নিজের পাওয়ার এর মাধ্যমে পর্দার সামনে আনাই তার দায়িত্ব। কিন্তু কেউ যদি এ কাজ করে পর্দার আড়ালে,তখন কি তাকে সুপারহিরো বলা যাবে?অবশ্যই,সুপার-ন্যাচারাল পাওয়ার থাকলে যে কেউ-ই সুপারহিরো। কিন্তু তার আরেকটা আইডেন্টিটি তৈরি হয়। একটা সাইলেন্ট গার্ডিয়ান হিসেবে,একজন ওয়াচফুল প্রটেক্টর হিসেবে,একজন ডার্ক নাইট হিসেবে।

ক্রিস্টোফার নোলান পরিচালিত ডার্ক নাইট ট্রিলজির প্রথম কিস্তি। অর্থাৎ ডিসির ব্যাটম্যান অরিজিন। কোনোরকম সুপারপাওয়ার না থাকলেও এ চরিত্র সুপারহিরোই! কারন ন্যায়ের জন্য সবসময় নিবেদিত প্রাণ।
ব্রুস ওয়েইন। অত্যন্ত ধনী পরিবারের ছোট এক বালক। কিন্তু ছোট থাকা অবস্থাতেই তার পিতামাতা খুন হন। দৃড়প্রতিজ্ঞ হয়েঠে সে। প্রতিশোধের জন্য। তাকে সিক্রেট সংঘটন বড় করে তোলে। এভাবেই শুরু হয় ব্রুস ওয়েইনের ব্যাটম্যান হবার গল্প। ছোট থাকতেই দেখেছে অপরাধ। তাই গোথামে আসে অপরাধ নির্মুল করতে।

The Dark Knight (2008)

মুভির শুরুতে দেখা যায়, Gotham city তে একদল ডাকাত এক ব্যাংক ডাকাতির জন্য আসে আর প্রচুর পরিমাণ ক্যাশ ডাকাতি করে।কিন্তু নিজেদের মধ্যেই ভাগ-বণ্টন এড়ানোর জন্য একজন আরেকজন কে মারতে থাকে, শেষ পর্যন্ত কেবল একজন মুখোশধারী বেঁচে থাকে।মুখোশ খুলতেই দেখা যায় জোকার কে, যে কিনা কয়েকদিন আগেই Arkham Asylum থেকে পালিয়ে যায়।এ ঘটনা ব্রুস ওয়েন জানার পর শুরু হয় ব্যটম্যান এর সাথে জোকার এর লড়াই,যার পুরোটাই ছিল জোকার এর একটা মাইন্ডগেইম।এখান থেকেই ব্রুসের ডার্ক নাইট হয়ে ওঠার গল্প শুরু,যার শেষ অংশে আপনি ‘Dark Knight’ উপাধি দেওয়ার রহস্য জানতে পারবেন।

সুপারহিরো মুভির মধ্যে কোনো মুভিকে যদি সত্যিকার অর্থে মাস্টারপিস বলতে হয়,আমি নিঃসন্দেহে ডার্ক নাইটের কথা বলবো।যদি মনে করেন সুপারহিরো মুভি মানেই সাদামাটা কোনো হিরো-ভিলেইনের মধ্যকার ফাইট দিয়েই মুভির ফার্স্ট টু লাস্ট, তাহলে কাইন্ডলি এই মুভিটা দেখবেন।মুভির স্টোরি,সিনেম্যাটোগ্রাফি,ডায়লগ, মিউজিক জাস্ট অসাধারণ ছিল।আর ভিলেইন রোলে হিথ লিজারের এক্টিং নিয়ে কি বলবো।জোকার ক্যারেক্টারকে আলাদা লেভেলে নিয়ে গেছেন তিনি।

মুভির সবচেয়ে আকর্ষণীয় পার্ট ছিল জোকারের একের পর এক মাইন্ডগেইম।মানে একটা কাহিনীর সাথে আরেকটা কাহিনী কি নিখুঁত ভাবে রিপ্রেজেন্ট করেছে ক্রিস্টোফার নোলান পরিচালিত এই মুভিতে, তা মুভিটা দেখলেই বুঝতে পারবেন।তবে শেষ টা সম্পর্কে অবশ্যই আলাদা করে কিছু বলতে হয়।সুপারহিরো মুভির এরকম এন্ডিং আসলে নোলানের মতো লেজেন্ডারি পরিচালক ই চিন্তা করতে পারে।এন্ডিং টার সাথে মুভির নামটা একদম পার্ফেক্টলি ম্যাচ হয়েছে।সব মিলিয়ে এরকম মাস্টারপিস মুভিটা যারা দেখেন নি,অবশ্যই দেখেতে সাজেস্ট করবো।

জোকারের কিছু কালজয়ী ডায়গলঃ

 

The Dark Knight Rises (2012)

ন্যায়বিচার, ভারসাম্য দুইটা শব্দের সাথে মোটামুটি আমরা সবাই পরিচিত। অর্থগত দিক দিয়ে এদের মধ্যে ব্যাপক পার্থক্য থাকলেও প্রায়ই এদের এক করে ফেলি আমরা। আমরা আসলে ভারসাম্য এর নামে কর্মফল বুঝি। কিন্তু কর্ম ন্যায়নিষ্ঠার পথ, ন্যায়বিচারের পথ অনুসরণ করে না।যখনই আমাদের মধ্যে একবার কেউ কর্মফলের ভূত প্রবেশ করাতে সক্ষম হয়,ঠিক তখনই আসল সমস্যা শুরু হয়।শুরু হয় খুনের বদলে খুন, জুলুমের বদলে জুলুম।

 

এভাবে যখন মানুষ নিজেরাই নিজেদের অস্তিত্ব বিলীন করতে থাকে তখন আমাদের সামনে ন্যায়-বিচারের প্রাচীর হিসেবে আসে একজন।অন্ধকারের মধ্যে মোমবাতির আলো যেমন তুচ্ছ হলেও আমাদের আশা দেখায়,হাজার ফুট নিচে গুহায় থেকেও আকাশ যেমন আমাদের আশা দেখায়, ঠিক তেমনি প্রাচীর হিসেবে এসে তিনি হয়ে যান সিম্বল অফ হোপ। “The Dark Knight Rises” এমনই এক আশার প্রতীক হয়ে ওঠার গল্প, এক নাইট-এর আবার পুনরুজ্জীবিত হয়ে ওঠার গল্প।

এবার আসি কাহিনীতে। হার্ভি ডেন্ট এর সাথে ব্যাটম্যান এর সেই ঘটনার আট বছর হয়ে গেছে।এখন গথাম সিটি দুর্নীতি বহির্ভূত ও শান্তিপ্রিয় এক শহর। শহরের সব দুর্নীতিবাজ ও প্রভাবশালী স্বার্থপর লোকেরা এখন আইনের আওতায়। হার্ভি ডেন্ট যেন মরে গিয়ে সবার সামনে একটা আইডল হয়ে গেছেন।শহরের সব উন্নতির জন্য সর্বপ্রথম তাকেই স্মরণ করা হয়,ব্যাটম্যান এর ক্ষেত্রে ব্যাপারটা ঠিক বিপরীত। সেদিনের পর থেকে ব্যাটম্যান হয়ে যায় সবার ঘৃণার পাত্র।গত আট বছর কোনো শত্রুর আগমন না হওয়ায় কেউ আর ব্যাটম্যান কে দেখেনি।সবার ধারণা ব্যাটম্যান চলে গেছে।

কিন্তু গথাম সিটির কি ব্যাটম্যান কে আর কখনোই প্রয়োজন হবে না? ঠিক এই প্রশ্ন থেকেই গল্পের নতুন ভিলেইন হিসেবে এন্ট্রি হয় বেন এর!জোকারের মতো মুখে কোনো পেইন্ট না বরং ব্যাটম্যান এর মতোই নিজের আইডেন্টিটি লুকোনোর জন্য বেন ব্যাবহার করে মাস্ক।কিন্তু কে এই মাস্কধারী বেন আর কেনই বা গথাম সিটিতে তার আগমন? বাকি গল্পটা মুভি দেখলেই বুঝবেন।

“The Dark Knight” শুধু ব্যাটম্যান ট্রিলজির না বরং ক্রিস্টোফার নোলানের পরিচালিত বেস্ট মুভি উইথ আউট এনি ডাউট! কিন্তু এই মুভিটা নিয়ে প্রায়ই তেমন আলোচনা হয়না,যদিও আমি মনে করি ব্যাটম্যান ট্রিলজির সবচেয়ে কমপ্লিট স্টোরিলাইন ছিল এই মুভিতে। Ra’s al ghul এর সাথে ব্রুসের ক্ল্যাশ এর সমাপ্তি দেখা যায় এখানে। ভিলেইন হিসেবে বেন যেমন পাওয়ারফুল ছিল,তেমনি ম্রিন্ডা ট্রেট এর আসল পরিচয় ছিল চোখ কপালে উঠিয়ে দেবার মতো।এ নিয়ে বেশি কিছু বলবো না ।বললে ফুল স্পয়লার হয়ে যাবে।

মুভিটা একই সাথে অনেক বেশি ইন্সপিরেশনাল আর ফিলোসোফিক্যাল।আর ফিনিশিংটা! ব্যাটম্যান যে একটা সুপারহিরোর চেয়েও বেশি কিছু, একটা সিম্বল,একটা ডার্ক নাইট; এর চেয়ে ভালো ভাবে হয়তো নোলান ছাড়া অন্য কোনো ডিরেক্টর দেখাতে পারতো না। শেষে বলতে চাই ডার্ক নাইট দেখার পরেও যারা এখনো এইটা দেখেননি, যত দ্রুত সম্ভব দেখে ফেলেন।মাস্ট ওয়াচ মুভি একটা।

এবার ডাউনলোড করার পালা।

আমি নিচে আপনাদের জন্য ডুয়াল অডিও(ইংলিশ এবং হিন্দি ডাবিং) গুগল ড্রাইভ লিংক দিয়ে দিচ্ছি।আপনারা ইচ্ছা করলে ডাউনলোড করার পর ইংরেজী অডিও সিলেক্ট করে বাংলা সাবটাইটেল দিয়েও দেখতে পারেন। গুগল একাউন্টে লগিন করে ডাউনলোড করে নিবেন।

Batman Begins (2005) : 

480p : Download Link Here

720p: Download Link Here

1080p: Download Link Here

Bangla Subtitle Link : Click Here

The Dark Knight (2008):

480p: Download Link Here

720p: Download Link Here

1080p: Download Link Here

Bangla Subtitle Link: Click Here

The Dark Knight Rises (2012):

480p: Download Link Here

720p: Download Link Here

1080p: Download Link Here

Bangla Subtitle Link: Click Here

তো আজকে এই পর্যন্তই।কোনো সমস্যা হলে বা কিছু জানার থাকলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জানাবেন।

আরো মুভি রিভিউ পেতে সময় পেলে ঘুরে আসতে পারেন আমাদের সাইট ঃ Tipsnewsbd

সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।আল্লাহ হাফেজ।

11 months ago (Mar 07, 2021)

About Author (59)

Redwan Ahmed Sawkhin Redwan Ahmed Sawkhin
author

ĂŚŚĂĹĂМÚ ĂĹĂĨĶÚМ..... I am nothing but a slave of almighty Allah

14 responses to “⭐️ মুভিজগতে ইতিহাস সৃষ্টি করা ফিল্ম সিরিজ The Dark Knight Trilogy দেখুন ডুয়াল অডিও (হিন্দি-ইংলিশ অডিও) এবং বাংলা সাবটাইটেল এ! 🔥”

  1. Sagor ST Sagor Islam Contributor says:

    মুভিটি অনেক আগেই দেখা। রিভিউ টা অনেক সুন্দর হইছে। এরকম আরো মুভি রিভিউ চাই।

  2. Tanvir Ahmed Tofan Contributor says:

    আপনি কি প্রায় সময় মুভি দেখেন। তা না হলে এত সুন্দর করে কেমনে লিখেন।

    • Redwan Ahmed Sawkhin Redwan Ahmed Sawkhin Author Post Creator says:

      জ্বী ফ্রি টাইম পেলেই মুভি দেখি।অনেক মুভি দেখা আছে আমার।আর উৎসাহ দেয়ার জন্য ধন্যবাদ।

  3. Sohag21 Sohag21 Contributor says:

    এই মুভিগুলোই খুঁজছিলাম। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে এত সুন্দর করে রিভিউ করার জন্য।

  4. The Matrix The Matrix Contributor says:

    Khub sondur review. Movie r screenshot gula kothai theke niyechen janale khusi hotam. Karon Google theke pic nile quality kharap hoye jai

  5. Sajjad Bappy Sajjad Bappy Contributor says:

    well done bro.

  6. EL Professor Mahedi Hasan Contributor says:

    Avengers series er movie gula niye ekta link soho post korar request korchi 💞

Leave a Reply

Switch To Desktop Version