প্রোগ্রামারদের জন্য জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গিটহাব। মূলত প্রোগ্রামিং করার সময় প্রোগ্রামাররা তাদের কাজ জমা রাখেন গিটহাবে। এটাকে ভিসিএস বা ভার্সন কন্ট্রোল সিস্টেম বলা হয়।
গিটহাব সম্প্রতি ২০১৫ সালের জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের একটি তালিকা প্রকাশ করে। জেনে নিন এগুলোর মধ্যে কোনটি সহজ এবং বেশ জনপ্রিয়। কোনটি শিখবেন আগে।
জাভাস্ক্রিপ্ট
গিটবাহের প্রতিবেদন অনুসারে জনপ্রিয়তার প্রথম স্থানে রয়েছে জাভাস্ক্রিপ্ট। ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনে তৈরিতে রয়েছে জাভাস্ক্রিপ্টের দারুন প্রভাব।
আমরা যেসব ব্রাউজার ব্যবহার করি যেমন- ফায়ারফক্স, গুগল ক্রোম, সাফারি, এসব ব্রাউজারেই সাধারনত জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যবহার করা হয়।
জাভাস্ক্রিপ্টের জনপ্রিয়তা এটিকে এমন জায়গায় নিয়ে গেছে এখন জাভাস্ক্রিপ্ট প্রোগ্রামিং ছাড়া ওয়েব অ্যাপ কল্পনা করাই যায় না। তবে এর কিছু সমস্যাও রয়েছে। যেমন, সঠিক ব্যবহার না করতে পারলে অ্যাপ্লিকেশন ব্রাউজারকে স্লো করে ফেলতে পারে।
জাভা
দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে জাভা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ। এটি মূলত ১৯৯১ সালে ডেভেলপ করা হয় স্মার্ট টেলিভিশনের জন্য।
নাম একই রকম হলেও জাভা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের সঙ্গে জাভাস্ক্রিপ্টের কোনো সম্পর্ক নেই।
প্রচন্ড জনপ্রিয় এ প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপ করা হয়। এ জন্য এর চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলছে।
এ ছাড়া জাভা দিয়ে ডেক্সটপ, সার্ভার সব ধরনের সফটওয়ার তৈরি করা সম্ভব।

রুবি
সার্ভার সাইড প্রোগ্রামিংয়ের জন্য ডেভেলপারদের প্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজগুলোর একটি রুবি। গিটহাব সাইটটিও তৈরি হয়েছে রুবি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের ওপর ভিত্তি করে।
খুব সহজেই লিখতে পারার কারণে ডেভেলপারদের পছন্দ এ রুবি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ। ওয়েব অ্যাপ তৈরির পথকে রুবির অ্যাড অন ফ্রেমওয়ার্ক আরও মসৃন করে তুলেছে।
পিএইচপি
পিএইচপি, প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজগুলোর মধ্যে সহজতম একটি ল্যাঙ্গুয়েজ। মূলত সার্ভার সাইড প্রোগ্রামিংয়ের জন্য ‘হাইপারটেক্স প্রি-প্রসেসর’খ্যাত ল্যাঙ্গুয়েজটি ব্যবহার কর হয়।
বড় বড় অনেক প্রতিষ্ঠান পিএইচপি ব্যবহার করে তৈরি করেছে তাদের প্রোডাক্ট। ওয়ার্ডপ্রেসের মত জনপ্রিয় সিএমএস তৈরি হয়েছে পিএইচপি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে।
এ ছাড়াও জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ সাইট ফেইসবুক ডেভেলপ করা হয়েছে পিএইচপি ব্যবহার করে।
পাইথন
সহজ প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ হলো পাইথন। সহজ হওয়ার কারণে প্রোগ্রামিং শুরু করার জন্য অনেক বিশেষজ্ঞ এটি দিয়ে প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শুরু করতে বলেন।
ল্যাঙ্গুয়েজটি রুবির মত সহজ হওয়ার কারণে জনপ্রিয়তা পেতেও বেগ পেতে হয়নি। পাইথন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ১৯৮৯ সাল শুরু হয়।
সিপিপি (সিপ্লাসপ্লাস)
ফাইটার জেট প্লেনের কোড লেখা হয় সিপ্লাসপ্লাস দিয়ে! কি অবাক হচ্ছেন?
এটি আরও একটি জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ। আমাদের দেশের ইউনিভার্সিটিগুলোর পাঠ্য সাবজেক্টগুলোতে সিপ্লাসপ্লাস পড়ানো হয়।
১৯৮৩ সালে অরজিন্যাল সি প্রোগ্রামিংয়ের পরিবর্তে নিয়ে আসা হয় এ অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজটি।
উইন্ডোজের মত অপারেটিং সিস্টেম, গুগল ক্রোমের মত জনপ্রিয় ব্রাউজার সফটওয়ারের কোডিং করা হয়েছে সিপ্লাসপ্লাস-এ।
সি শার্প
মিউজিক্যাল নোটেশান অনুসারে C# এর নামকরণ করা হয় সি শার্প। এটাও এসেছিল অরিজিনাল সি লাঙ্গুয়েজকে স্থানান্তর করার জন্য। এটি ডেভেলপ করে মাইক্রোসফট এ প্রোগ্রমিং ল্যাঙ্গুয়েজ করেছে।
সি
১৯৭২ সালে জন্ম নেওয়া এ প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েটি এখনও জনপ্রিয়তা ধরে রেখেছে। দেশের প্রায় সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের কম্পিউটার সায়েন্স কিংবা নন- কম্পিউটার সায়েন্সে পাঠ্য হিসেবে রয়েছে এ পোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ।
অনেকের মতে সি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ হচ্ছে আধুনিক সব প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের জননী।

2 thoughts on "জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ – কোনটা শিখবেন আগে? অ্যাপ ডেভেলপার, প্রোগ্রামারদের জন্য"

  1. mdatikulislam mdatikulislam Contributor says:
    জাভাস্কিপট
  2. মোঃ আশিকুর রহমান arparvez Author Post Creator says:
    assa ami graphic design shikte cai, tar jonno konta shikbo

Leave a Reply