তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির আজকের বিকাশের পেছনে রয়েছ অনেকের অবদান। নিচে তাদের সম্পর্কে বর্ননা করা হলো:-

১.চারর্লস ব্যাবেজ(১৭৯১-১৮৭১):-


আধুনিক কম্পিউটার এর বিকাশ ঘটে চার্লস ব্যাবেজ নামে এক ইংরেজ প্রকৌশলী ও গনিতবিদের হাতে। তাকে আধুনিক কম্পিউটারের জনকও বলা হয়। তিনি তৈরি করেন ডিফারেন্স ইন্জ্ঞিন। ১৯৯১ সালে ব্যাবেজের বর্ননা অনুসারে লন্ডন জাদু ঘরে একটি ইন্জ্ঞিন তৈরি করা হয়।দেখা যায় যে, এটি সঠিক ভাবেই কাজ করছে এবং পরবর্তীতে
তিনি এনালিটিক্যাল ইন্জ্ঞিন নামে একটি গণনা যন্ত্রের পরিকল্পনা করেন।।

২.এডা লাভলেস(১৮১৫-১৮৫২):-


চার্লস ব্যাবেজ যে গননা যন্ত্রের পরিক্লপনা করেন,তা কিভাবে
আরো ভালো কাজ করবে,কিভাবে আরো কার্যকর
করা যায় সেটি নিয়ে ভেবেছিলেন এডা
লাভলেস।মায়ের কারনে এডা ছোটকাল থেকে
বিজ্ঞান ও গণিতে আগ্রহী হয়ে ওঠেন।১৮৩৩ সালে ব্যাবেজের সাথে তার পরিচয় হলে তিনি
ব্যাবেজের এনাল্যাটিকাল ইন্জ্ঞিনকে কাজে
লাগানোর জন্য ‘প্রোগ্রামিং’ এর ধারনা সামনে
নিয়ে আসেন।এ কারনে এডাকে “প্রোগ্রামিং”
ধারনার প্রবর্তক হিসেবে সম্মানিত করা হয়।১৮৪২
সালে ব্যাবেজ তুরিন বিশ্ববিদ্যালয়ে তাঁর
ইন্জ্ঞিন সম্পর্কে বক্তব্য দেন।সে সময় এডা
ব্যাবেজের সহায়তা নিয়ে পুরো বক্তব্যের সঙ্গে
ইন্জ্ঞিনের কাজের ধারনাটি বর্ণনা করেন। কাজের ধারা বর্ননা করার সময় তিনি এটিকে
ধাপ অনুসারে ক্রমাঙ্কিত করেন।এডার মৃত্যুর ১০০
বছর পর ১৯৫৩ সালে সেই নোট আবারও প্রকাশিত
হলে বিঙ্গানিরা বুঝতে পারেন এডা এলগরিদম
প্রোগ্রামিং এর ধারনাটা আসলে প্রকাশ
করেছিলেন।।

আজ এ পর্যন্তই।।বাকি পর্ব গুলো খুব শীঘ্রই

প্রকাশিত হবে আমাদের সাথেই থাকুন।।

ভালো লাগলে আমার সাইটটা একবার দেখে আসবেন

5 thoughts on "তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির বিকাশে উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্ব Part-1"

  1. MD RAFIQ Contributor says:
    [b] nice [/b]


    1. Tasnim Akondo Tasnim Akondo Contributor Post Creator says:
      ধন্যবাদ
  2. KAZI SHAWON Contributor says:
    [b][h2] Faltu post [/h2][/b]
  3. Shishir Shishir Contributor says:
    Thanks For Share Knowledge

Leave a Reply