আসসালামুআলাইকুম, ও হিন্দু ভাইদের আদাব। আশা করি সবাই অনেক ভাল আছেন।প্রতিবারের মতো আবারো আপনাদের মাঝে আরেকটি আর্টিক্যাল নিয়ে হাজির হলাম।টাইটেল দেখে অনেকে হয়তো বুঝে গেছেন, আজকে কোন বিষয় আপনাদের মাঝে লিখতে যাচ্ছি। আজকের বিষয় হলো, মধু খাওয়ার উপকারিতা ও কিভাবে মধু খেলে উপকারে আসবে। মধু হলো এক প্রকারের উচ্চ ঔষুধি গুন সম্পন্ন মিস্টি ও ঘন তরল পদার্থ। যা অত্যান্ত উপকারী। প্রাচীনকাল থেকেই মধু ব্যাবহার হয়ে আসছে ঔষুধি গুন হিসাবে। আজকে আপনাদের মাঝে এটাই শেয়ার করব মধু খাওয়ার উপকারিতা ও কিভাবে মধু খেলে উপকারিতা আসবে জেনে নিন। আমরা হয়তো অনেকে জানি যে মধু বিভিন্ন ভাবে ব্যাবহার হয়ে থাকে। বিভিন্ন ঔষুধ বানানোর কাজে ও মধু ব্যাবহার হয়ে থাকে। কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক, মধু খাওয়ার উপকারিতা ও কিভাবে মধু খেলে উপকারে আসবেঃ

১) শরীরকে তাজা রাখেঃ

মধু শীতের ঠান্ডায় শরীরকে গরম রাখে। এক চা অথবা দুই চা চামচ মধু মধু ফুটোনো পানির সাথে খাইলে শরীর তাজা হয়। শরীর ঠিক রাখতে মধু অনেক উপকারী। তাই আমাদের মধু খাওয়া উচিৎ।

২) হাড় ও দাঁত গঠনেঃ

মধু তে রয়েছে ক্যালসিয়াম,যা আমাদের শরীরের জন্য অত্যান্ত উপকারী। দাতঁ,হাড়,চুলের গোড়া,মজবুত ও শক্ত রাখে। ও ভঙ্গুরতা দূর করে।

৩) ওজন কমায়ঃ

মধু খেলে অনেক কাজ করে ওজন কমাতে।কারন এই মধুতে কোনো প্রকার চর্বি নেই। এবং মধু পেট পরিস্কার করে।এবং চর্বি কমায়, এবং ওজন কমায় এই মধু।

৪) উচ্চ রক্তচাপ কমায়ঃ

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন করে এই মধু। দুই চামচ মধুর সাথে, এক চামচ রসুনের রস মেশান।সকাল ও সন্ধা এটি খাবেন। প্রতিনিয়ত এটি খেলে উচ্চ রক্তচাপ কমাবে। প্রতিদিন সকালে খাওয়ার এক ঘন্টা আগে খাওয়া উচিৎ এই মিশ্রনটি।

৫) হৃদরোগে মধুঃ

হৃদরোগের জন্য মধু খুব উপকারী। এক চামচ মৌরি গুড়ার সাথে, দুই চামচ মধুর মিশ্রন খেলে।এটি অনেক উপকারী। এটি হৃদপেশিকে সবল করে ও এর কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

৬) হাঁপানী রোগে মধুঃ

হাঁপানী রোগ প্রতিরোধ করতে মধু ব্যাপক ভুমিকা পালন করে। আধা গ্রাম গুড়া গোলমরিচের সাথে, সম পরিমান মধু এবং আদা মেশান। দিনে অন্তত তিনবা এই মিশ্রন খাবেন। এবং আপনার হাঁপানী রোগ প্রতিরোধ করবে।

৭) তারুণ্য বজায় রাখতেঃ

তারুণ্য বজায় রাখতে মধু অনেক ভুমিকা পালন করে থাকে। মধুতে রয়েছে অ্যান্টি -অক্সিডেন্ট যা ত্বক সুন্দর ও তারুণ্য বজায় রাখে। এছাড়া ও মধু ত্বকের দাগ বা ছোপ এগুলো দূর করে। এবং মধু তারুণ্য ধরে রাখে।

৮) পানি শূন্যাতায় মধুঃ

পানি শূন্যতায় মধু অনেক ভুমিকা পালন করে।ডায়রিয়া হলে আপনি ১ লিটার পানিতে ৫০ মিলিলিটার মধু মিশিয়ে খেলে দেহের পানি শূন্যাতা দূর হবে।

৯) যৌন দূর্বালতা কাটাতে মধুঃ

যৌন দূর্বালতা কাটাতে মধু অনেক ভুমিকা পালন করে। পুরুষদের মধ্য যাদের এই সমস্যা আছে,তারা মধু ও ছোলা মিশ্রিত করে খাবেন। ভাল উপকার পাবেন।

১০) কোষ্ঠ কাঠিন্য দূর করতে মধুঃ

কোষ্ঠ কাঠিন্য দূর করতে মধু অনেক ভুমিকা পালন করে। মধুতে আছে ভিটামিন -বি কমপ্লেক্স। ভোরবেলা ১ চা চামচ মধু খেলে এই রোগ থেকে মুক্তি দেবে।

১১) হজম শক্তি বৃদ্ধি করেঃ

মধুতে রয়েছে সর্করা,যা সহজে হজম হয়। মধুতে কোনো চর্বি না থাকায় খুব সহজে হজম হয়। এবং আমাদের হজম শক্তিকে ও আরো বাড়িয়ে তোলে।

১২) শ্বাসকষ্ট ও ফুসফুস এর রোগ নিরাময়েঃ

ফুসফুস এর যাবতীয় রোগ নিরাময় এ মধু ব্যাপক ভুমিকা পালন করে।একটা এজমা রোগী যদি নাকের কাছে মধু নিয়ে টান দেয়।তাহলে সে সহযে নিস্বাস নিতে পারে। শ্বাসকষ্ট ও ফুসফুস এর রোগের জন্য মধ্য অনেক উপকারী।

১৩) রক্ত শূন্যতায়ঃ

রক্তের হিমোগ্লোবিন এর জন্য মধ্য অত্যান্ত কার্যকারি। যার কারনে মধু রক্ত শূন্যাতায় ব্যাপক ফলদায়ক।

টেকনিক্যাল বিষয়ে যাবতীয় ভিডিও ও সমাধান পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুনঃ

Youtube Channel

আজ এ পযন্ত,
ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জ্ঞান আপনাদের মাঝে তুলে ধরার চেস্টা করি।
পরবর্তী আর্টিক্যাল এর জন্য অপেক্ষা করুন, আবারো ভাল কিছু নিয়ে হাজির হবো।
সে পযন্ত ভাল থাকুন,সুস্থ থাকুন।

যে কোনো প্রয়োজনে আমার সাথে ফেসবুকে যোগাযোগ করতে চাইলেঃ- Sk Shipon

ধন্যবাদ

2 thoughts on "মধু খাওয়ার উপকারিতা ও কিভাবে মধু খেলে উপকারে আসবে,জেনে নিন।"

  1. Rifat Contributor says:
    ওজন ত এম্নেতেই কম😥
    এখন কি করব 🤔
    1. Sk Shipon Author Post Creator says:
      বিকল্প চেস্টা করুন।

Leave a Reply