Home » Online Earning » ফরেক্স শিখুন প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত ( ১১ম পর্বঃ বিভিন্ন ধরনের অর্ডার কি? ) ০২ – ট্রেড পরিচিতি

1 week ago (Dec 03, 2017) 219 views

ফরেক্স শিখুন প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত ( ১১ম পর্বঃ বিভিন্ন ধরনের অর্ডার কি? ) ০২ – ট্রেড পরিচিতি

Category: Online Earning Tags: by

প্রিয় ট্রিকবিডি সাইটের সকল ভিজিটরকে আমার সালাম।আশা করি আপনারা সকলে ভালো আছেন। আর আমিও এই সাইটের সাথে থেকে অনেক ভালো আছি। এবার টিউনে ফিরে আসি।
বিভিন্ন ধরনের অর্ডার

আপনার ব্রোকার আপনাকে বিভিন্নভাবে ট্রেড অর্ডার প্লেস করার সুযোগ দিবে। এখানে অর্ডার মানে আপনি কিভাবে ট্রেড শুরু ও শেষ করবেন তা বুঝায়। চলুন দেখি মার্কেটে কি কি ভাবে অর্ডার ব্যাবহার করার ব্যাবস্থা আছে:

অর্ডার টেবিল

নিম্নের ছবিটি দেখুন

ফরেক্স অর্ডার

Symbol – আপনি কোন কারেন্সি পেয়ার ট্রেড করতে চান সেটা এখানে দেখায়।

Volume – আমরা যে লট ( ১ লট= ১০০,০০০ ইউনিট) পড়েছিলাম সেটাকে Volume বলে।

Stop Loss – প্রাইস যদি একটা নির্দিস্ট পরিমান লস খায় তাহলে ট্রেড নিজে নিজেই ক্লোজ হয়ে যাবে।

Take Profit – প্রাইস যদি একটা নির্দিস্ট পরিমান লাভ পায় তাহলে ট্রেড নিজে নিজেই ক্লোজ হয়ে যাবে।

Comment – আপনি যদি আপনার ট্রেডে কোন নোট করতে চান তাহলে তা এখানে করতে পারবেন।

Type – এখানে ২ রকম অর্ডার প্লেস করতে পারবেন। নিম্নে এগুলো বিস্তারিত দেয়া হয়েছে।

Sell & Buy Button – এই বাটন ২ টি দিয়ে বাই অথবা সেল দেয়া হয়।


বিভিন্ন ধরনের অর্ডার

ইনস্ট্যান্ট এক্সিকিউশন

আপনি যদি বর্তমান মার্কেট মূল্যে অর্ডার প্লেস করতে চান তাহলে সেটা ইনস্ট্যান্ট এক্সিকিউশনে করতে হয়। উপরের ছবিটা দেখুন। বিড এবং আসক প্রাইস দেয়া আছে। আপনি বাই/সেল যেকোন বাটনে ক্লিক করলে সঙ্গে সঙ্গে ট্রেড শুরু হয়ে যাবে।

পেন্ডিং অর্ডার

যদি প্রাইস একটা নির্দিষ্ট পর্যায়ে গেলে আপনি ট্রেড শুরু করতে চান তাহলে আপনাকে পেন্ডিং অর্ডার ব্যাবহার করতে হবে। পেন্ডিং অর্ডারের আবার ধরন আছে।

লিমিট অর্ডার

সেল লিমিট: যখন আপনি বর্তমান প্রইসের চেয়ে বেশি ভ্যালুতে সেল করতে চান, তখন এটা ব্যাবহার করেন। ধরুন EUR/USD এর বর্তমান প্রাইস ১.৩২৬৫। আপনি সেল করতে চান যখন প্রাইস ১.৩৩১৫ এ যাবে। তখন আপনি সেল লিমিট অর্ডার দেবেন।

বাই লিমিট: যখন আপনি বর্তমান প্রইসের চেয়ে কম ভ্যালুতে বাই করতে চান, তখন এটা ব্যাবহার করেন। ধরুন EUR/USD এর বর্তমান প্রাইস ১.৩২৬৫। আপনি বাই করতে চান যখন প্রাইস ১.৩২৩১ এ যাবে। তখন আপনি বাই লিমিট অর্ডার দেবেন।

স্টপ অর্ডার

বাই স্টপ: যখন আপনি বর্তমান প্রইসের চেয়ে বেশি ভ্যালুতে বাই করতে চান, তখন এটা ব্যাবহার করেন। ধরুন EUR/USD এর বর্তমান প্রাইস ১.৩২৬৫। আপনি বাই করতে চান যখন প্রাইস ১.৩৩১৫ এ যাবে। তখন আপনি বাই স্টপ অর্ডার দেবেন।

সেল স্টপ: যখন আপনি বর্তমান প্রইসের চেয়ে কম ভ্যালুতে সেল করতে চান, তখন এটা ব্যাবহার করেন। ধরুন EUR/USD এর বর্তমান প্রাইস ১.৩২৬৫। আপনি সেল করতে চান যখন প্রাইস ১.৩২৩১ এ যাবে। তখন আপনি সেল স্টপ অর্ডার দিবেন।

ট্রেইলিং স্টপ

এটা অর্ডার বক্সে পাবেন না। যখন আপনার অর্ডার প্লেস করা হবে তখন সেই অর্ডারটিতে রাইট মাউস বাটর ক্লিক করুন। সেখানে ট্রেইলিং স্টপ দেখবেন।

ট্রেইলিং স্টপ আপনার ট্রেডের স্টপ লস পরিবর্তন করতে থাকে যখন আপনার ট্রেড লাভে খাকে। ধরুন আপনার EUR/USD সেল ট্রেড ১.৩২৩১ এ শুরু হল। আপনার স্টপ লস ছিল ১.৩২৬১। আপনি ট্রেইলিং স্টপ ২০ পয়েন্ট দিলেন। তাহলে দেখবেন যখনই আপনার ট্রেড বর্তমান স্টপ লস থেকে ২০ পিপের বেশি যায় তখনই আপনার স্টপ লস পরিবর্তন হতে দেখা যায়।

 

পোস্টে কোন ভুল ত্রুটি হলে ক্ষমা করে দিবেন।

ভুজতে সমস্যা হলে কমেন্ট করুন অথবা ফেচবুকে জানাবেন।

যুদি একটু সময় হয় তাহলে আমার সাইটে ঘুরে আসবেনঃ tricklikhun.com

 

Report

About Post: 22489

Nurul Amin

নিজে জানবো এবং অন্যদের জানানোর চেষ্টা করবো। আমার ওয়েবসাইটে ঘুরে আসবেন প্লিজঃ http://tricklikhun.com

2 responses to “ফরেক্স শিখুন প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত ( ১১ম পর্বঃ বিভিন্ন ধরনের অর্ডার কি? ) ০২ – ট্রেড পরিচিতি”

Leave a Reply