সুপ্রিয় বইপ্রেমী ভাইয়েরা,,,কেমন আছেন সবাই। আশা করি ভালো আছেন সবাই। আমিও ভালোই আছি। আপনারা যেন আরও অনেক বেশি ভালো থাকতে পারেন,সেজন্য আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি অতি চমৎকার একটি কিশোর ক্লাসিক গল্পের বই।

বই বিষয়ক তথ্য
  • বইয়ের নাম :সলোমনের গুপ্তধন ;
  • লেখক :হেনরি রাইডার হ্যাগার্ড ;
  • অনুবাদ :রকিব হাসান ;
  • প্রকাশকাল :ফেব্রুয়ারি,১৯৮৫ ;
  • প্রকাশনী :সেবা প্রকাশনী।
  • গল্পের প্লট

    অ্যালান কোয়াটারমেইন নামের একজন ইংরেজ ব্যবসায়ীর জবানিতে গল্পটি সংকলিত হয়েছে। এই ইংরেজ একজন দক্ষ শিকারী,বয়স ষাট বছরের কাছাকাছি,বাস দক্ষিণ আফ্রিকায়।

    একদিন হাতি শিকার থেকে ফেরার জাহাজে পরিচয় হয় হেনরি কার্টিস ও ক্যাপ্টেন জন গুড এর সাথে। পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে হেনরি কার্টিসের তার ভাই মিষ্টার নেভিলি এর সাথে বিবাদ হয়। বিবাদের জের ধরে নেভিলি নিজের জমানো কিছু টাকা নিয়ে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। তার ভাইয়ের সাথে আর যোগাযোগ করে নি।

    লোকমুখে তিনি শুনতে পান,নেভিলি এক ভয়াবহ অভিযানে গিয়েছেন। সেখানে নেভিলির সাথে এই কোয়াটারমেইন এর পরিচয় হয়েছিলো। কোয়াটারমেইন একদিন এক মুমূর্ষু অভিযাত্রীর কাছ থেকে পুরনো মখমলে কাপড়ের মোড়কে একটি কাগজের টুকরা পেয়েছিল। কাগজটিতে সলোমনের গুপ্তধন খুঁজে পাওয়া
    সিলভেস্ত্রা নামের এক ব্যক্তি নিজের রক্ত দিয়ে গুপ্তধনের কথা লিখে গিয়েছিলেন। একটি নকশাও ছিলো।

    এই চিঠি আর নকশার কথা শুনেই হেনরির ভাই নেভিলি গুপ্তধন খুঁজতে যায়,কিন্তু আর ফিরে আসে নি। হেনরিও গুপ্তধন উদ্ধারের আশায় আর নিজের ভাইয়ের খোঁজ পাওয়ার জন্য এই রোমাঞ্চকর অভিযানে রওনা দেন। সঙ্গী হিসেবে পান ক্যাপ্টেন গুড,কোয়ার্টারমেইন এবং নিকটস্থ বসতির একজন আফ্রিকান নিগ্রো দাস।

    যাত্রার পথ ভারি দুর্গম। পথে এক ভয়ংকর মরু পাড়ি দিতে হয়। পদে পদে বিপদ। ক্লান্ত -অবসন্ন দেহের অভিযাত্রীরা তৃষ্ণায় কাতর। একফোঁটা পানিও নেই। কি হবে এখন!!! তারা কি বাঁচতে পারবে? অভিযাত্রী এক সদস্যের বিরল বুদ্ধিতে তারা সে যাত্রা পানির সন্ধান পায় এবং তৃষ্ণা নিবারণ করে মরুপথ পাড়ি দিতে সক্ষম হয়।

    মরুপথ পাড়ি দিয়ে তারা পৌঁছে যায় গুপ্তধনের রাজ্যে। সে রাজ্যে তখন চলছিলো চরম অন্যায়-অবিচার। রাজা ছিল জুলুমবাজ। রাজ পরিবারের সদস্য এক ডাইনী পূজোর নাম করে প্রতিদিন একজন করে মানুষ খুন করতে থাকে। এই ডাইনীই একমাত্র গুপ্তধনের গুহার পথের কথা জানে। অভিযাত্রীদের দেখেই সে বুঝে ফেলে তাদের উদ্দেশ্য। সে আঁটতে থাকে তার জাদু-বিদ্যার নানা ফন্দি। অভিযাত্রীরা কি সফল হবে?? তারা কি পারবে,এই জুলুমবাজ রাজা আর এই ডাইনীর খপ্পর থেকে বেরিয়ে গুপ্তধন উদ্ধার করতে??? বাকিটা বইপ্রেমী ভাইদের জন্যই রেখে দিলাম।

    আমি নিজের ভাষায় সংক্ষিপ্ত করে গল্পের কিছুটা তুলে ধরতে চেষ্টা করেছি। বইটি সত্যিই অসাধারণ। চরম রোমাঞ্চকর। রকিব হাসান অত্যন্ত দক্ষ হাতে বইটির সার্থক অনুবাদ করেছেন।

    তো ভাই, আর দেরি কেনো,বইটি এখনি Download করুন আর আপনিও হয়ে উঠুন এই অসাধারণ সাহসী যাত্রার একজন। উদ্ধার করে ফেলুন সলোমনের সেই গুপ্তধন।

    Download Link :সলোমনের গুপ্তধন
    Size : 4.98 MB

    পোষ্টটি পড়ার জন্য সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। বইটি অবশ্যই আপনাদের ভালো লাগবে।

    ভুল ত্রুটি হলে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। সবাই ভালো থাকুন এবং TrickBD এর সঙ্গেই থাকুন।

    My Facebook Profile

9 thoughts on "[Ebook Review] আপনাদের জন্য নিয়ে আসলাম রোমাঞ্চকর “সলোমনের গুপ্তধন” বইটি। কিশোর ক্লাসিক এই বইটি এখনি Download করে নিন।"

  1. Ferdous Ahmed (Reporter) Ferdous Ahmed Author says:
    ভাই এভাবে একটা একটা বই শেয়ার করলে সারা জীবনেও শেষ করতে পারবেপ না।
  2. Trickbd Support Trickbd Support Moderator says:
    খারাপ নয়।
    তবে কপি পেস্ট যেনো কোনোভাবেই না হয়।
    সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন।
    1. Muzzammil Hossain Muzzammil Hossain Author Post Creator says:
      হুম,,,ধন্যবাদ Moderator ভাই।
    1. Muzzammil Hossain Muzzammil Hossain Author Post Creator says:
      Tnx Bro…
  3. AkashBanik AkashBanik Contributor says:
    ডাউনলোড করর রাখলাম। আশা করি ভালোই লাগবে বইটা।
    1. Muzzammil Hossain Muzzammil Hossain Author Post Creator says:
      Hm,,,Bro….Obossoi vlo lagbe…..
  4. Mustakim Hossain Contributor says:
    valoo lagbe mone hoy
  5. Faysal1122 Faysal1122 Contributor says:
    me,,, boi poka…. share korar jonno tnx…

Leave a Reply