ছাত্রাবস্থায় টিউশনি করে আয় করা একটা প্রধান উৎস। টিউশনি করালে যেমন আয় করা সম্ভব তেমনি পাশাপাশি নিজের পড়াশোনা করা সম্ভব হয়। টিউশনি করানোর সময় যা পড়ানো হয় তা মূলত চাকরি পরীক্ষায় কাজে আসে।

টিউশনি পাওয়ার উপায়
তবে গ্রাম থেকে যখন শহরে কেউ টিউশনি করাতে আসে তখন টিউশনি খুঁজে পাওয়াটা কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। টিউশনি কোথায় পাবো? কিভাবে টিউশনি খুঁজে পাবো? টিউশনি পাওয়ার উপায় ইত্যাদি প্রশ্ন সারাক্ষণ নিজেদের মনে ঘুরপাক খায়।


আজকে আমি জানাতে যাচ্ছি টিউশনি পাওয়ার কার্যকরী কিছু উপায় সম্পর্কে। আশা করি পুরো আর্টিকেলটি একদম শেষ পর্যন্ত মনোযোগ দিয়ে পড়বেন। তো চলুন জানা যাক, টিউশনি পাওয়ার উপায়।

টিউশন পাওয়ার সেরা ৫টি উপায়

১. বড় ভাইয়ের রেফারেন্স

আপনি শহরের যে এলাকায় টিউশনি পড়াতে ইচ্ছুক, সেখানকার আপনার বড় ভাইদের খুঁজে বের করতে হবে। আপনার পরিচিত বড় ভাই ও বন্ধু বান্ধব যারা আগে থেকেই টিউশনি করাচ্ছে তাদের বলে রাখলে খুব সহজে আপনি টিউশনি পেয়ে যাবেন।

তারা আগে থেকেই টিউশনি পড়াচ্ছে তাদের কাছে অনেক টিউশনের অফার এসে থাকে। তাই পরিচিত বড় ভাই ও বন্ধুবান্ধবের সাথে ভালো নেটওয়ার্কিং গড়ে তুললে খুব সহজে আপনি টিউশনি পেয়ে যাবেন।

আপনার পরিচিত বড় ভাই ও বন্ধুবান্ধবকে নিজের টিউশনি করার অভিজ্ঞতা সম্পর্কে ধারণা দিলে তারা গার্ডিয়ানদের আস্থা দিতে পারবে।

২. “পড়াতে চাই” বিজ্ঞাপন দেওয়া

আপনি বড় ভাই ও পরিচিত বন্ধু বান্ধবের সহায়তায় টিউশন পেতে যদি ব্যর্থ হন, তবে আপনি এই পন্থা অবলম্বন করতে পারেন। অনেকে খুব সহজে এই পন্থা অবলম্বন করে টিউশনি পেয়ে থাকে। এজন্য আপনাকে পোস্টার ও ব্যানার বা লিফলেট তৈরি করে রাস্তায় লাগাতে হবে।

পোস্টারে অবশ্যই নিজের যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার কথা আকর্ষণীয়ভাবে উপস্থাপন করতে হবে। পাশাপাশি নিজের সাথে যোগাযোগ করার সচল কিছু নাম্বার দিতে হবে। সহজে টিউশনি পাওয়ার অন্যতম জনপ্রিয় উপায় এটি।

৩. অনলাইন থেকে টিউশনি খোঁজা

আপনি যদি উপরোক্ত দুটি উপায়ে টিউশনি খুঁজে পেতে ব্যর্থ হন তবে অনলাইন থেকে টিউশন খুঁজতে পারেন। আপনি চাইলে এখন ওয়েবসাইট ও বিভিন্ন ফেইসবুক পেইজ থেকে টিউশনি খুঁজে পেতে পারেন।

ওয়েবসাইট থেকে টিউশনি খুঁজে পেতে হলে আপনাকে ওই ওয়েবসাইটে নিজের বিস্তারিত বর্ণনা দিয়ে একটা একাউন্ট তৈরী করে নিতে হবে। যেমন: আপনার নাম, আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা, আপনি কোন বিভাগে পড়েন এবং আপনার বর্তমান অবস্থান, কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েন তার নাম ও যোগাযোগ করার নাম্বার ইত্যাদি।

ওয়েবসাইটে আপনি দুই পদ্ধতি ব্যবহার করে টিউশনি খুঁজে পেতে পারেন। একটা পদ্ধতি হলো ফ্রী আরেকটা হল পেইড। পেইড পদ্ধতিতে আপনাকে ওয়েবসাইটের এডমিনকে কিছু টাকা প্রদান করতে হয়।

বিভিন্ন ফেইসবুক পেইজ থেকে টিউশনি পেতেও আপনাকে কিছু টাকা এডমিনকে কমিশন দিতে হয়। ফেসবুকে আপনি Tuition Wanted নামে অনেক পেইজ ও গ্রুপ পাবেন সেখান থেকে টিউশনি খুঁজে পেতে পারেন।

এছাড়া নিচে উল্লেখিত ওয়েবসাইট থেকে আপনি টিউশনি খুঁজে পেতে পারেন । টিউশনি পাওয়ার ওয়েবসাইট : Caretutors . com, tutorsbangladesh . com ও Chirkut . net ইত্যাদি।

৪. কোন কোচিং সেন্টারে যোগ দেওয়া

আপনি কোন একটা কোচিং সেন্টারের যোগ দিতে পারেন। সেখানে যদি আপনি পড়ার দক্ষতা ভালো দেখাতে পারেন তবে খুব সহজে অনেকগুলো টিউশনি ম্যানেজ করতে পারবেন।

কোচিং এর সব শিক্ষার্থীর সাথে পরিচিত হলে এবং সবার কাছে আপনি গ্রহণযোগ্য হলে এমনিতে প্রচুর টিউশনি পেয়ে যাবেন।

৫. অনলাইনে ক্লাস নেওয়া

আপনি ইউটিউব কিংবা ফেসবুক ব্যবহার করে নিয়মিত অনলাইনে বিভিন্ন বিষয়ে ক্লাস নিতে পারেন। আপনি যখন সবার নিকট পরিচিত পাবেন এবং আপনার ক্লাসগুলো সকলের নিকট পছন্দ হলে তখন এমনিতেই প্রচুর পরিমাণ টিউশনির অফার পাবেন।

উপরোক্ত উপায়গুলো অনুসরণ করলে আপনি খুব সহজে অল্প সময়ের মধ্যে টিউশন খুঁজে পাবেন।

 

আরও পড়ুন  : রবি সিম মিনিট চেক ২০২২

দীর্ঘদিন টিউশন ধরে রাখার উপায়

১) সব সময় সতর্ক থাকতে হবে এমন কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না ঘটে যাতে আপনার সম্মান ক্ষুন্ন হয়।

২) গার্ডিয়ানদের কখনো বুঝতে দিবেন না টিউশনি একমাত্র আপনার আয়ের উৎস। এতে অভিভাবক তাদের প্রতি আপনাকে নির্ভরশীল মনে করতে পারে।

৩) শিক্ষার্থীদের সাথে ভুলেও প্রেমের সম্পর্কে জড়াবেন না। এতে যেমন অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থাকে তেমনি শিক্ষকদের প্রতি শিক্ষার্থীদের সম্মান ও শ্রদ্ধাবোধ কমে যায়।

৪) শিক্ষার্থীর ব্যক্তিগত বিষয়ে প্রশ্ন না করা এবং তার পরিবার বিষয়ে অতিরিক্ত তথ্য জানতে না চাওয়া উচিত।

৫) শিক্ষার্থীকে পড়ানোর সময় ভুলেও মোবাইল ফোন চাপাচাপি করা যাবে না। চ্যাটিং কিংবা মেসেজিং থেকে একদম বিরত থাকবেন।

৬) গাইড দেখে পড়াতে যাবেন না। এতে আপনার প্রতি শিক্ষার্থীর মনে নেতিবাচক চিন্তা আসতে পারে।

৭) সবসময় মার্জিত ব্যক্তিত্ব ফুটে তুলবেন। শিক্ষার্থী ও অভিভাবক সবার সাথে সুন্দর আচরণ করুন।

উপরের টিপসগুলো অনুসরণ করলে আপনি যেকোনো টিউশন দীর্ঘদিন ধরে রাখতে পারবেন।

এরকম আরও দরকারী যেকোনো টিপস ও ট্রিকস পেতে ভিজিট Bongoupdate.com

Leave a Reply