আসসালামু আলাইকুম আশা করি ভাল আছেন!
সুপ্ত ভাই এর আগে একটা পোস্ট করেছে ডায়াগ্রাম তৈরি করার
উপাদান গুলি নিয়ে। কিন্ত বিস্তারিত কিছু বলেনি। পরে ফেসবুকে
আমাকে কয়েকজন রিকোয়েস্ট করল বিস্তারিত পোস্ট লিখতে।
তাই লিখলাম। আজ আমরা সুপ্ত ভাইয়ের দেয়া ডায়াগ্রাম টাই
আজ আবার আকব। এই ডায়াগ্রাম আকার আগে
সুপ্ত ভাইয়ের পোস্ট টা দেখে আসুন।
কারন উনি যে জিনিস গুলি শেয়ার করেছে সেগুলি লাগবে। তাই
এগুলি সংগ্রহে রাখুন।
তো চলুন শুরু করা যাক।
প্রথমে পিক্সার্ট ওপেন করে Draw ক্লিক করে ১০২৪*১০২৪
সাইজ সিলেক্ট করে সাদা কালারে এডিটিং এ চলে যান।

তারপর Add Photo তে ক্লিক করুন আর তারের মাথা হিসেবে
ব্যাবহৃত পিকটা আনুন।
এটাকে ছোট করে একসাইডে বসান।

তারপর একটা হাইফেন এড করুন আর এটাকে চিকন করে
ওই তারের মাথার সাথে যুক্ত করুন, এমন ভাবে করবেন যাতে
দেখে মনে হয় একই তার এটা। তারপর ওকে ক্লিক(Next)করুন।
তারপর আবার তারের মাথার ফটোটি আগের মত এড করুন
আর অন্য মাথায় বসিয়ে দিন। চিত্রের মত।

তারপর চিত্রে দেখানো ভাবে হাইফেন দিয়ে উল্লেখিত জায়গায়
বসিয়ে সংযোগ করুন। তারপর Add photo তে ক্লিক করুন।

তারপর আপনি ডায়োড,, ইন্ডিকেটর বাল্ব, রেসিস্ট্যান্স গুলো
চিত্রের মত করে স্থাপন করে দিন। তারপর আবার Next ক্লিক।

তারপর আপনি বাল্ব, সুইচ,,এগুলি এড করে বসিয়ে দিন।

দেখবেন তৈরী হয়ে গেছে আমাদের ডায়াগ্রাম।

আরও কিছু কথা

আপনি হয়ত রেখা(তার) আঁকতে গিয়ে সমস্যায় পড়তে পারেন।
আরে ভাই মুল পিকটাকে জুম করুন আর হাইফেন কে চিকন
করে বসান আরামসেএএএএ। আর একটা রেখা বসানোর পরেই
সেভ দিবেন।


ডায়াগ্রামে তার বা রেখা গুলিকে অতিরিক্ত মোটা করে বসাবেননা এতে দৃষ্টি কটু দেখাবে!,,,,,,,।


আপনি হয়ত বলতে পারেন সুপ্ত ভাই তো সুন্দর করে (+) (-)
বসিয়েছে কিন্ত আমিতো দেইনি! তাহলে আমি বলব আপনি
একটা “O” add করুন আর তার মাঝে একটা + এড করে দিন,,,,
অনুরুপ ভাবে (-) এর ক্ষেত্রে একই পন্থা অবলম্বন করুন।



আপনি হয়ত বলতে পারেন বারবার নেক্সট এর কথা বলছি! বা
এই নেক্সট টা আসলে কি?

নেক্সট বলতে বুঝানো হয়েছে সেভকে,,,কিন্ত ফুল সেভ না।
দেখবেন কম্পিউটারে লিখার সময় বারবার সেভ করা হয় যাতে
ডাটা নস্ট না হয়,,,এটাও ঠিক এমনই।। এতে আপনি কিছু সুবিধা
পাবেন,। যেমন জুম করতে গেলে অনেকসময় হাতের টাচে অন্য
পিক বা লেখা নস্ট হয়ে যায়! আপনি বারবার সেভ(নেক্সট) চাপলে এ সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন।


।এইছিল আজকের মত।
আরো কোনও প্রশ্ন অভিযোগ থাকলে কমেন্টে বলুন।
আচ্ছা সাপোর্ট টিম জানাল যে “Electronics” ক্যাটাগরি দেয়া হয়েছে,,,অন্য এক ভাইকেও কমেন্ট করতে দেখা গেল! আমার কথা হচ্ছে আসলেই কি এটা দেয়া হয়েছে? কারন আমি খোজে পাচ্ছিনা,,,,। হয়ে থাকলে প্লিজ লিংক দিতে ভুলবেন না।

14 thoughts on "[Electrigic] আসুন ডায়াগ্রাম তৈরি করা শিখি!……………বিস্তারিত।"

  1. স্বপ্ন স্বপ্ন Author says:
    ভালো পোস্ট ধন্যবাদ ভাই
    1. SK SHARIF SK SHARIF Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ। আচ্ছা ইলেক্ট্রনিকস ক্যাটাগরি কি দেয়া হয়েছে?
      1. স্বপ্ন স্বপ্ন Author says:
        হ্যাঁ ভাই
        1. SK SHARIF SK SHARIF Author Post Creator says:
          কই ভাই লিংক দিন প্লিজ
      1. SK SHARIF SK SHARIF Author Post Creator says:
        হ্যা সুপ্ত ভাই
    1. SHUPTO SHARKAR MARZ SHUPTO Author says:
      ধন্যবাদ।
    2. SK SHARIF SK SHARIF Author Post Creator says:
      ধন্যবাদ।
  2. Md Habibul Basher Rabby RS Rabby Contributor says:
    ডায়াগ্রাম দিয়ে কি করে ভাই,,,????
    1. SK SHARIF SK SHARIF Author Post Creator says:
      ইলেক্ট্রিক্যাল পোস্ট করতে এটা লাগেই
      1. Md Habibul Basher Rabby RS Rabby Contributor says:
        ধন্যবাদ ভাই

Leave a Reply